Tuesday, July 23, 2024
বাড়িরাজ্যচাকরির জন্য এখন আর মিছিল মিটিংয়ে হাটতে হয় না, পরীক্ষা দিয়ে স্বচ্ছতার...

চাকরির জন্য এখন আর মিছিল মিটিংয়ে হাটতে হয় না, পরীক্ষা দিয়ে স্বচ্ছতার মাধ্যমে চাকরি পাওয়া যায় : মুখ্যমন্ত্রী

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ৩ জুলাই : বুধবার এক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে এ.ডি নগর স্থিত পি.আর.টি.আই হলে মোট ৪৭৪ জন চাকুরি প্রাপকের হাতে অফার লেটার তুলে দেন মুখ্যমন্ত্রী ডাক্তার মানিক সাহা। অনুষ্ঠানে প্রদীপ প্রজ্বলন করে সুচনা করেন মুখ্যমন্ত্রী। তারপর অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী ডাক্তার মানিক সাহা বলেন বর্তমান সরকার চায় স্বচ্ছতার মাধ্যমে সবকিছু হোক। সঠিক নিয়োগ নীতি ও স্বচ্ছতার মাধ্যমে চাকুরি প্রদান করা হলে সুশাসনের বিষয়টি নিশ্চিত হবে। আগে চাকুরি পাওয়ার জন্য রাজনৈতিক নেতাদের কাছে যেতে হত, মিছিল, মিটিং-এ যেতে হত। বর্তমানে চাকুরি পাওয়ার জন্য কাউকে মিছিল মিটিং-এ যেতে হয় না।

পরীক্ষা দিয়ে নিজের মেধার পরিচয় দিয়ে যুবক যুবতীরা চাকুরি পাচ্ছে। বহু সরকারি কর্মচারী রয়েছেন যারা চাকুরি থেকে অবসরে চলে গেছেন, আবার অনেকে ইতিমধ্যে প্রয়াত হয়েছেন। কিন্তু তারা তাদের কাজের মাধ্যমে নিজেদের পরিচয় দিয়ে গেছেন। সংশ্লিষ্ট দপ্তরে এখনো তাদের নাম নিয়ে আলোচনা হয়। নতুন চাকুরি প্রাপকদের উদ্দেশ্যে মুখ্যমন্ত্রী আহ্বান জানান তারা যেন তাদের কাজের মাধ্যমে নিজেদের পরিচয়ের জানান দেন। বর্তমান সরকার ২০১৯-২০ অর্থবছরে গ্রুপ-সি পদে ৯৬৫ জন, ২০২০-২১ অর্থ বছরে ৬২৯ জন, ২০২১-২২ অর্থবছরে ২,৬৯৯ জন, ২০২২-২৩ অর্থ বছরে ৫,০৪৪ জন এবং ২০২৩-২৪ অর্থ বছরে ১,৯৬৬ জনকে সরকারি চাকুরি প্রদান করা হয়েছে বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী। তিনি আরও জানান গ্রুপ-ডি পদে ২০১৮-১৯ অর্থবছরে ১০০ জন, ২০১৯-২০ অর্থবছরে ১৭৪ জন, ২০২০-২১ অর্থবছরে ১২১ জন, ২০২১-২২ অর্থবছরে ১৩৪ জন, ২০২২-২৩ অর্থবছরে ১১৬ এবং ২০২৩-২৪ অর্থবছরে ৭৮ জনকে চাকুরি প্রদান করা হয়েছে।  সর্বমোট ১৩,৬৬১ জনকে সরকারি চাকুরি প্রদান করা হয়েছে।

 বর্তমান সরকার কাজে বিশ্বাসী, প্রচারে নয়। সরকার সব জায়গায় স্বচ্ছতা বজায় রাখতে চায়। ত্রিপুরার ছেলে মেয়েরা বর্তমানে কোন অংশে কম নয় বলে অভিমত ব্যক্ত করেন মুখ্যমন্ত্রী ডাক্তার মানিক সাহা।এদিন অফার পেয়ে আপ্লুত যুবক যুবতীরা। পিএ-২, পঞ্চায়েত নির্বাহী কর্মকর্তা, সিডিপিও, আই সি ডি এস সুপারভাইজার মিলিয়ে মোট ৪৭৪ জনের হাতে অফার লেটার তুলে দেন মুখ্যমন্ত্রী। অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রী ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের মুখ্য সচিব জে.কে সিনহা, বিধায়িকা মিনারানী সরকার সহ অন্যান্য আধিকারিকরা।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য