Friday, May 31, 2024
বাড়িরাজ্যআসামী পালিয়ে যাওয়ার ঘটনায় গ্রেফতার দুই

আসামী পালিয়ে যাওয়ার ঘটনায় গ্রেফতার দুই

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ১৫ মে : বিশালগড় স্থিত কেন্দ্রীয় সংশোধনাগার থেকে মঙ্গলবার পালিয়ে যায় পুলিশ কর্মী খুনের ঘটনায় সাজা প্রাপ্ত আসামী স্বর্ণ কুমার ত্রিপুরা। এই নিয়ে তৃতীয়বার সে সংশোধনাগার থেকে পালিয়ে যায়। জানা যায় ২০১৪ সালে চুরির মামলায় পুলিশ তাকে আটক করলে আদালতের নির্দেশে তার ঠাঁই হয় বিশালগড় স্থিত কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারে।

কিন্তু সে কেন্দ্রীয় সংশোধনাগার থেকে পালিয়ে যায়। তারপর পুলিশ কর্মী অঙ্ক্য মগ হত্যার ঘটনায় তাকে ফের গ্রেপ্তার করে পুলিশ। সেই মামলায় আদালত তাকে দোষী সাব্যস্ত করে সাজা ঘোষণা করে। ফের একবার তার ঠাই হয় কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারে। চার বছর পূর্বে সে দ্বিতীয়বারের মতো কেন্দ্রীয় সংশোধনাগার থেকে পালিয়ে যায়। তারপর বহিঃরাজ্য থেকে পুলিস তাকে গ্রেপ্তার করে নিয়ে আসে। পুনঃরায় তার ঠাই হয় কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারে। কিন্তু কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারে কর্মরত জেল পুলিসদের গাফিলতির কারনে তৃতীয় বারের মতো সে পালিয়ে যায়।

 মঙ্গলবার সকালে কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারের কয়েদিদের উপস্থিতি নিশ্চিত করার সময় দেখা যায় আসামি স্বর্ণ কুমার ত্রিপুরা অনুপস্থিত। কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারের জেলার দেবাশীষ শীল ও সাব জেলার নান্টু দাসের নজরে আসে বিষয়টি। তারপর শুরু হয় পুলিশের দৌড়ঝাঁপ। সিপাহীজলা জেলার পুলিশ সুপার, আইজি প্রিজন সহ বিশালগড় থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী ছুটে যায় কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারে। শুরু হয়েছে তল্লাসি অভিযান। এইদিকে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় জেল সুপার তথা বিশালগড়ের মহকুমা শাসক রাকেশ চক্রবর্তী বিশালগড় থানায় কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারের ওয়ার্ডেন তপন রূপিণী ও গার্ড কমান্ডার মোহম্মদ মফিজ মিয়ার বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন সংশোধনাগারের সিসি ক্যামেরার ফুটেজ খতিয়ে দেখার পর। অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে বিশালগড় থানার পুলিশ ঘটনার তদন্তে নেমে অভিযুক্ত দুই জনকে আটক করে। বিশালগড় থানার ওসি জানান লিখিত অভিযোগ পত্র থানায় জমা পড়ার পর তদন্তক্রমে সংশোধনাগারের ওয়ার্ডেন তপন রূপিণী ও গার্ড কমান্ডার মোহম্মদ মফিজ মিয়াকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ঘটনার তদন্ত চলছে। বুধবার দুপুরের পর বিশালগড় থানার পুলিশ চার দিনের পুলিশ রিমান্ডের আর্জি জানিয়ে ধৃতদের বিশালগড় মহকুমা আদালতে সোপর্দ করে। উল্লেখ্য আসামি স্বর্ণ কুমার ত্রিপুরার বাড়ি দক্ষিন জেলার মনু বাজারের ছোট সাকবাড়ি এলাকায়। পলাতক আসামি স্বর্ণ কুমার ত্রিপুরার বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে। পুলিশ পলাতক আসামি স্বর্ণ কুমার ত্রিপুরাকে জালে তোলার জন্য প্রয়াস চালিয়ে যাচ্ছে। এখন দেখার পুলিশ পলাতক আসামী স্বর্ণ কুমার ত্রিপুরাকে জালে তুলতে পারে কিনা।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য