Wednesday, June 19, 2024
বাড়িরাজ্যবর্তমান সরকারের সময়ে কোন ধরনের রাজনৈতিক হস্তক্ষেপ নেই : মুখ্যমন্ত্রী

বর্তমান সরকারের সময়ে কোন ধরনের রাজনৈতিক হস্তক্ষেপ নেই : মুখ্যমন্ত্রী

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ২৭ আগস্ট : ত্রিপুরা মেডিকেল কলেজ এবং ডক্টর ব্রাম টিচিং হসপিটালের ১৮ তম প্রতিষ্ঠা দিবস পালন করা হয় রবিবার। একই সাথে স্বামী বিবেকানন্দ অডিটোরিয়ামের উদ্বোধন করা হয়। এইদিন প্রথমে প্রদীপ প্রজ্জলন করে অনুষ্ঠানের সুচনা করেন মুখ্যমন্ত্রী ডাক্তার মানিক সাহা। পরে ফিতা কেটে এবং ফলক উন্মোচন করে স্বামী বিবেকানন্দ অডিটোরিয়ামের উদ্বোধন করেন মুখ্যমন্ত্রী।

 এইদিনের অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী ডাক্তার মানিক সাহা বলেন ত্রিপুরা মেডিকেল কলেজ এবং ডক্টর ব্রাম টিচিং হসপিটালের শুরুতে অনেক বাধা বিপত্তি আসে। সকল বাধা বিপত্তি কাটিয়ে ত্রিপুরা মেডিকেল কলেজ এবং ডক্টর ব্রাম টিচিং হসপিটালের পথ চলা শুরু হয়। তারপর কলেজের প্রতিষ্ঠা দিবসকে কেন্দ্র করে বিতর্ক দেখা দেয়। অনেকে অনেক কিছু না জেনে নিজেকে জাহির করার চেষ্টা করে। পরবর্তী সময় সেই বিতর্কের অবসান ঘটে। ইতিহাসকে কখনো বিকৃত করা উচিত নয়। ত্রিপুরা মেডিকেল কলেজের অনেক ইতিহাস রয়েছে। কলেজের ফ্যাকাল্টির সাথে ছাত্র-ছাত্রিদের মধ্যে মধুর সম্পর্ক সর্বদা বজায় রাখতে হবে। ত্রিপুরা মেডিকেল কলেজ এবং ডক্টর ব্রাম টিচিং হসপিটালের ট্রমা সেন্টার চালু করার উপর গুরুত্ব দেন মুখ্যমন্ত্রী।

 তিনি বলেন একটা মেডিক্যাল কলেজে ট্রমা সেন্টার না থাকলে সেই মেডিক্যাল কলেজের মান উন্নয়ন কোন অবস্থায় সম্ভব নয়। মুখ্যমন্ত্রী এইদিন অভিযোগ করেন পূর্বতন সরকারের সময় ত্রিপুরা মেডিকেল কলেজ এবং ডক্টর ব্রাম টিচিং হসপিটাল পরিচালনার ক্ষেত্রে রাজনৈতিক হস্তক্ষেপ ছিল। কিন্তু বর্তমান সরকারের সময় কোন ধরনের রাজনৈতিক হস্তক্ষেপ নেই বলে দাবি করেন মুখ্যমন্ত্রী। রাজ্যে মেডিক্যাল হাব তৈরি করার চিন্তা ভাবনা করছে বর্তমান রাজ্য সরকার। নেশা মুক্ত ত্রিপুরা গড়ার লক্ষ্যে রাজ্যে নেশা মুক্তি কেন্দ্র খোলা হয়েছে। প্রাথমিক হাসপাতাল গুলিকে সামাজিক হাসপাতালে রূপান্তর করা হচ্ছে। জিবি হাসপাতালে ৯ টি সুপার স্পেশালিটি বিভাগ খোলা হয়েছে। ফলে বহিঃরাজ্যে রোগী রেফারের সংখ্যা অনেকটা হ্রাস পেয়েছে। চিকিৎসকদের উপর মানুষের বিশ্বাস রাখতে হবে। চিকিৎসকদেরও মানুষের বিশ্বাস অর্জন করতে হবে বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী ডাক্তার মানিক সাহা। অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রী ডাক্তার মানিক সাহা ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বিধানসভার উপাধ্যক্ষ রাম প্রসাদ পাল সহ অন্যান্যরা। এইদিন অনুষ্ঠানে কলেজের ফ্যাকাল্টি, অধ্যাপক, অধ্যাপিকা, হাসপাতালের চিকিৎসক সহ কলেজের পড়ুয়াদের উপস্থিতি ছিল লক্ষ্যণীয়।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য