Friday, August 19, 2022
বাড়িরাজ্যশহীদ পুলিশ আধিকারিককে শেষ শ্রদ্ধা মুখ্যমন্ত্রীর, প্রয়াতের স্ত্রীকে সরকারী চাকুরী দেওয়ার...

শহীদ পুলিশ আধিকারিককে শেষ শ্রদ্ধা মুখ্যমন্ত্রীর, প্রয়াতের স্ত্রীকে সরকারী চাকুরী দেওয়ার ঘোষণা, আর্থিক সহায়তাও


আগরতলা, ২৭ নভেম্বর (হি. স.) : উন্মত্ত ব্যক্তির নৃশংস হামলায় শহীদ হয়েছেন খোয়াই থানার সেকেন্ড অফিসার ইন্সপেক্টর সত্যজিত মল্লিক৷ আজ তাঁর বাসভবনে গিয়ে শেষ শ্রদ্ধা জানিয়েছেন ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব৷ সেই সঙ্গে ঘোষণা করেছেন, খোয়াইয়ের ঘটনায় নিহতদের প্রত্যেককে আপদকালীন ১ লক্ষ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে৷ পাশাপাশি শহীদ সত্যজিত মল্লিকের স্ত্রীর চাকুরীর ব্যবস্থা করবে ত্রিপুরা সরকার এবং তাঁর শিশু কন্যার পড়াশুনার দায়িত্ব নেওয়া হবে৷ আজ খোয়াই থেকে আগরতলায় ইন্দ্রনগর স্থিত শহীদ পুলিশ আধিকারিকের মরদেহ পৌছাতেই কান্নার আওয়াজে পরিবেশ ভারী হয়ে উঠেছিল৷

আজ খোয়াইতে শহীদ পুলিশ আধিকারিক সত্যজিত মল্লিককে গার্ড অব অনার দেওয়া হয়েছে৷ আইজিপি আইন-শৃঙ্খলা অরিন্দম নাথ, খোয়াই জেলা পুলিশ সুপার কিরণ কুমার রাও, খোয়াই জেলা শাসক স্মিতা মল এবং স্থানীয় বিধায়কগণ তাঁর প্রতি শেষ শ্রদ্ধা জানিয়েছেন৷

এদিন মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ত্রিপুরা পুলিশের সাহসী আধিকারিক কর্তব্যরত অবস্থায় শহীদ হয়েছেন৷ তাঁর মর্মান্তিক মৃত্যুতে অত্যন্ত ব্যথিত হয়েছি৷ তাঁর কথায়, নির্দয়ী প্রদীপ দেব রায়ের নৃশংসতা ভাষায় প্রকাশ করা সম্ভব নয়৷ শহীদ পুলিশ আধিকারিক এবং নিহত আরও চারজনের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাচ্ছি৷ তাঁর ঘোষণা, প্রত্যেক নিহতদের পরিবারকে আপদকালীন ১ লক্ষ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে৷ সত্যজিত মল্লিকের স্ত্রীর বয়স অল্প৷ এই দুর্দিনে তাঁর চাকুরীর বন্দোবস্ত করবে ত্রিপুরা সরকার৷ তিনি আরও যোগ করেন, শহীদ পুলিশ আধিকারিকের ছোট কন্যা সন্তান রয়েছে৷ তাঁর পড়াশুনার দায়িত্ব নেওয়া হবে৷ ত্রিপুরা পুলিশ এবং ত্রিপুরা সরকার সমস্ত ব্যবস্থা করবে৷

প্রসঙ্গত, উন্মত্ত ব্যক্তির নৃশংসতার শিকার হয়েছেন দুই শিশু কন্যা ও পুলিশ আধিকারিক সহ পাঁচজন৷ বধ্যভূমি ত্রিপুরায় খোয়াই জেলায় উত্তর রামচন্দ্রঘাট এলাকায় ভিড় চৌমুহনীর শেওরাতলি৷ শুক্রবার গভীর রাতে প্রদীপ দেবরায় তাঁর দুই অবুঝ সন্তান মন্দিরা দেব রায় ও আরতি দেব রায়, বড় ভাই অমলেশ দেব রায়, অটো যাত্রী কৃষ্ণ দাস এবং খোয়াই থানার সেকেন্ড অফিসার সত্যজিত মল্লিককে শাবল দিয়ে এলোপাথারি আঘাত দিয়ে খুন করেছে৷ তাঁর স্ত্রী মিনা পাল দেব রায় এবং অটো যাত্রী কর্ণবীর দাসকেও খুনের চেষ্টা করেছে৷ তাঁরা বর্তমানে আশঙ্কাজনক অবস্থায় জিবি হাসপাতালে চিকিত্সাধীন রয়েছেন৷

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য