Saturday, December 3, 2022
বাড়িরাজ্যতোল্লা না পেয়ে দোকানপাট ভাঙচুর

তোল্লা না পেয়ে দোকানপাট ভাঙচুর

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ২৮ অক্টোবর :  শাসক দলের দুর্বৃত্তকে তোল্লা না দেওয়ায় দোকানপাট ভাঙচুর। ঘটনা উদয়পুর ক্যানেল চৌমুহনীতে। ঘটনার বিবরণে জানা যায়, আক্রান্ত ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীর নাম রাজেশ সরকার।

 তিনি জানান দীপাবলি মেলার শেষ দিন ভোর বেলার দিকে রেস্টুরেন্ট বন্ধ করে বাড়ি যাওয়ার সময় মদমত্ত অবস্থায় এলাকার বখাটে যুবক ইন্দ্রজিৎ দাস রাজেশকে এক হাজার টাকা দেওয়ার জন্য বলে। দোকান মালিক রাজেশ টাকা দিতে আপত্তি করায় পাশের এক বাড়ি থেকে একটি লোহার রড এনে রাজেশকে এলোপাথাড়ি মারতে শুরু করে ইন্দ্রজিৎ। নিজের প্রাণ বাঁচাতে কোন রকমে দোকান থেকে বেরিয়ে দৌড়ে চলে যায় নিজ বাড়িতে। পিছনে ধাওয়া করে রাজেশের বাড়ির সামনে পর্যন্ত লোহার রড নিয়ে যায় ইন্দ্রজিৎ।

সেখান থেকে ফিরে এসে ইন্দ্রজিৎ রাজেশের দোকান ঘরটি ভেঙ্গে তছনছ করে ফেলে। নগদ বার হাজার টাকা নিয়ে যায় ইন্দ্রজিৎ। পরে রাজেশ নিরুপায় হয়ে ছুটে যান আরকেপুর থানায়। থানায় ইন্দ্রজিৎ এর বিরুদ্ধে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন রাজেশ। অভিযোগ মূলে পুলিশ এসে রাজেশের দোকান ঘরটির অবস্থা দেখে ইন্দ্রজিৎ -এর বাড়িতে যায়। পুলিশ আসার খবর পেয়ে তার আগেই ইন্দ্রজিৎ গা ঢাকা দেয়। জানা যায় ক্যানেল চৌমুহনীর প্রায় সব দোকান থেকেই নাকি তোল্লা আদায় করেন ইন্দ্রজিৎ। যে দোকান মালিক তোল্লা দিতে আপত্তি করেন তার উপরই হামলে পড়েন ইন্দ্রজিৎ। বুধবার রাতেও একই ঘটনা সংগঠিত করেছেন অন্য এক ব্যবসায়ীর সাথে। জানা যায় বিজেপি সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকেই নাকি তার যন্ত্রণায় অতিষ্ঠ আছেন ক্যানেল চৌমুহনী বাজারের ব্যবসায়ীরা। কেউ ভয়ে মামলা করেনি এতদিন। এখন দেখার বিষয় বিজেপি কর্মী রাজেশ সরকারের অভিযোগ পেয়ে পুলিশ কি ভূমিকা গ্রহণ করে।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য