Tuesday, July 23, 2024
বাড়িখেলাচাপে থাকা কোচের পাশে দাঁড়ালেন ফোডেন

চাপে থাকা কোচের পাশে দাঁড়ালেন ফোডেন

স্যন্দন ডিজিটেল ডেস্ক, ৪ জুলাই: ছন্দ হারিয়ে নিজেকে খুঁজতে থাকা কিংবা বাজে সময়ের মধ্যে থাকা ফুটবলারদের প্রতি যে কোনো কোচের সমর্থন জানাতে দেখা যায় প্রায় নিয়মিতই। তবে এবার ঠিক বিপরীত কাজটি করলেন ফিল ফোডেন। সমালোচনার তীরে বিদ্ধ হতে থাকা কোচ গ্যারেথ সাউথগেটের পাশে দাঁড়ালেন ইংল্যান্ড ফরোয়ার্ড।চলতি ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপে এখন পর্যন্ত প্রত্যাশামাফিক খেলতে পারেনি ইংল্যান্ড। শক্তির বিচারে তুলনামূলকসহজ গ্রুপে পড়েও তিন ম্যাচে তারা জিততে পারে শুধু সার্বিয়ার বিপক্ষে। ডেনমার্ক ও স্লোভেনিয়া ম্যাচ ড্র করে নাম লেখায় শেষ ষোলোয়।কোয়ার্টার-ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে স্লোভাকিয়ার বিপক্ষে হারতে হারতে শেষ মুহূর্তের গোলে বেঁচে যায় তারা। যোগ করা সময়ের পঞ্চম মিনিটে সমতাসূচক গোল করেন জুড বেলিংহাম। পরে অতিরিক্ত সময়ের প্রথম মিনিটে হ্যারি কেইন করেন জয় এনে দেওয়া গোল।

চার ম্যাচে গোল ৪টি, জয় মাত্র দুটি। এমন পারফরম্যান্স স্বাভাবিকভাবেই মানতে পারছেন না ইংল্যান্ডের সাবেক ফুটবলার, বিশ্লেষকরা। সমর্থকরাও কড়া প্রতিক্রিয়া দেখাচ্ছেন প্রত্যাশা না মেটার কারণে।সমালোচনার তীরগুলো মূলত ছুটে যাচ্ছে সাউথগেটের দিকেই। কোচ হওয়ায় তার কৌশল ও দলকে এগিয়ে নেওয়ার সামর্থ্য নিয়েও উঠছে প্রশ্ন। তবে তরুণ ফোডেনের মতে, সব দায় কোচের একা নয়।শেষ আটের লড়াই শুরুর আগে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে খেলোয়াড়দেরও দায় নিতে বললেন ২৪ বছর বয়সী ফরোয়ার্ড “কিছুটা দায় ফুটবলারদেরও নিতে হবে। নেতৃত্বস্থানীয় কয়েকজনকে একত্রে বসে সমাধান বের করতে হবে, কী কারণে কাজ হচ্ছে না।”

“এখানে কোচের আসলে খুব বেশি কিছু করার নেই। তিনি আপনাকে একটা পদ্ধতি দেখিয়ে বলতে পারেন কীভাবে চেপে ধরতে হবে। যদি সেভাবে না হয় তাহলে পথ বের করে নিতে হবে।”ডুসেলডর্ফে শনিবার রাত ১০টায় সুইজারল্যান্ডের মুখোমুখি হবে ইংল্যান্ড। ওই ম্যাচের কোচের পরামর্শ অনুযায়ী খেলার জন্য ফুটবলারদের দায়িত্ব নেওয়ার কথা বারবার মনে করিয়ে দিলেন ফোডেন।“গ্যারেথের জন্য আমার মায়া হয়। অনুশীলনে তিনি আমাদের প্রতিনিয়ত ‘প্রেস’ করে খেলতে বলছেন, মাঠের ওপরের অংশে থাকার কথা। তাই আমার কখনও কখনও মনে হয়, এটি ফুটবলারদের থেকে আসতে হবে।”

“আমাদের নেতা হতে হবে। ম্যাচে আমাদের আরও একাট্টা হয়ে সমাধান বের করতে হবে। হ্যাঁ আমরা এটি নিয়ে অনেক কথা বলেছি। তাই ম্যাচে আবার যদি এমন হয়, আমরা একত্রিত হয়ে সমাধান করার চেষ্টা করতে পারি। দেখতে পারি কোথায় ভুল হচ্ছে এবং সেভাবে প্রেস করতে হবে।”ম্যানচেস্টার সিটির হয়ে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের সেরা ফুটবলারের খেতাব জিতে ইউরো খেলতে এসেছিলেন ফোডেন। কিন্তু এখন পর্যন্ত নিজের সামর্থ্যের ঝলক সেভাবে দেখাতে পারেননি তিনি। চার ম্যাচে পাননি গোলের দেখা। তাই নিজের ছন্দ নিয়ে কিছুটা চিন্তা থাকলেও, পারফরম্যান্সের উন্নতিতে সন্তুষ্ট ফোডেন।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য