Thursday, February 29, 2024
বাড়িখেলামদ্যপানের পর বেহুঁশ হওয়ার সেই ঘটনা নিয়ে মুখ খুললেন ম্যাক্সওয়েল

মদ্যপানের পর বেহুঁশ হওয়ার সেই ঘটনা নিয়ে মুখ খুললেন ম্যাক্সওয়েল

স্যন্দন ডিজিটেল ডেস্ক, ১২ ফেব্রুয়ারি: ব্যাট হাতে বিধ্বংসী সেঞ্চুরিতে আবারও খবরের শিরোণামে গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। তবে কিছুদিন আগে তিনি খবরে এসেছিলেন মাঠের বাইরের বিতর্কিত কাণ্ডে। মদ্যমানের পর হাসপাতালে যেতে হওয়ার সেই ঘটনায় বিব্রত অস্ট্রেলিয়ান তারকা তাকাতে চাইছেন সামনে। ওই সময়টায় পাশে থাকার জন্য তিনি কৃতজ্ঞতা জানালেন ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার প্রতিও।ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে রোববার ৫৫ বলে ১২০ রানের ইনিংস খেলেন ম্যাক্সওয়েল। এই সংস্করণে ৫ সেঞ্চুরির রেকর্ডে স্পর্শ করেন তিনি রোহিত শার্মাকে। তার ৫০ বলের সেঞ্চুরিটি অস্ট্রেলিয়ার মাঠে দ্রুততম সেঞ্চুরির রেকর্ড।

ব্যাট হাতে তাকে এই চেহারায় দেখাটা অস্ট্রেলিয়ার জন্য কাঙ্ক্ষিতই। কিন্তু ক্যারিয়ারে নানা সময়ে অনাকাঙ্ক্ষিত নানা ঘটনাতেও জড়িয়েছেন তিনি। যে শহরে এবারের রেকর্ড গড়া সেঞ্চুরিটি করলেন তিনি, সেখানেই তাকে হাসপাতালে যেতে হয়েছিল গত ১৯ জানুয়ারি।ক্লান্তি কাটিয়ে চনমনে ও তরতাজা হয়ে উঠতে ক্যারিবিয়ানদের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ থেকে ম্যাক্সওয়েলকে বিশ্রাম দেওয়া হয়েছিল। ওই সময় গলফ ইভেন্টের আমন্ত্রণ পেয়ে অ্যাডিলেইডে যান তিনি। গলফ খেলার পর সন্ধ্যায় স্থানীয় এক হোটেল একটি কনসার্টে যান তিনি, যেখানে পারফর্ম করেন সাবেক অস্ট্রেলিয়ান গতি তারকা ব্রেট লি ও তার ব্যান্ড ।সেখানেই মদ্যপান করতে করতে এক পর্যায়ে ব্যান্ডের সাজঘরে অজ্ঞান হয়ে পড়েন তিনি। দ্রুত অ্যাম্বুলেন্স ডেকে তাকে হাসপাতালে নেওয়া হয়। তবে গুরুতর কিছু হয়নি তার। প্রাথমিক চিকিৎসার পর ছাড়া পেয়ে যান, হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়নি।তব এই ঘটনা তোলপাড় ফেলে দেয় অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটে। বোর্ড ও টিম ম্যানেজমেন্ট অবশ্য তার পাশেই ছিল সেসময়। তবে পরে তাকে কড়াভাবে সতর্ক করে দেন অস্ট্রেলিয়ার কোচ অ্যান্ড্রু ম্যাকডোনাল্ড।

সেঞ্চুরির পর সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে সেদিনটায় ফিরে গেলেন ম্যাক্সওয়েল। ঘটনার গভীরে অবশ্য খুব একটা গেলেন না তিনি।“আমি জানতাম যে সপ্তাহখানেক ছুটি আছে আমার… তবে হ্যাঁ, অবশ্যই ওই ঘটনা আদর্শ কিছু নয় এবং ওই সময়টাও। তবে এক সপ্তাহের ছুটি ছিল আমার… জানতাম যে, খেলা ধেকে এক সপ্তাহ দূরে থাকব।”“এরপর ফিরে এসেছি, রানিং শুরু করেছি দ্রুত, জিমে গিয়েছি, খুব ভালো অনুভব করেছি এবং তরতাজা হয়েই ফিরেছি। এই টি-টোয়েন্টি সিরিজ ও সামনের সব লড়াইয়ের দিকে তাকিয়ে প্রস্তুত হয়েই ফিরেছি।”শারীরিক কোনো ক্ষতি বা সমস্যা হয়নি জানিয়ে ম্যাক্সওয়েল বললেন, ‘এই ঘটনা সম্ভবত আমার চেয়ে আমার পরিবারের ওপরই বেশি প্রভাব ফেলেছে।”তবে কোচ ম্যাকডোনাল্ড, প্রধান নির্বাচক জর্জ বেইলিসহ বোর্ডকে যেভাবে পাশে পেয়েছেন তিনি, সেজন্য ধন্যবাদ জানাতে ভুললেন না। ঘটনা দ্রুত ভুলে সামনে তাকিয়েছেন বলেও জানালেন তিনি।“কোচ, বেইলস (জর্জ বেইলি), সংশ্লিষ্ট সবাই ছিল অসাধারণ। সবার প্রতি দারুণভাবে কৃতজ্ঞ আমি। বেশ দ্রুতই সামনে তাকিয়েছি আমি। (শুক্রবারের ঘটনার পর) সোমবারই ট্রেনিংয়ে ফিরেছি এবং বেশ ভালো অনুভব করেছি।”

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য