Monday, February 6, 2023
বাড়িখেলা‘অস্ট্রেলিয়ার সেরাটা বের করে আনে আর্জেন্টিনা’

‘অস্ট্রেলিয়ার সেরাটা বের করে আনে আর্জেন্টিনা’

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক, আগরতলা,৩ ডিসেম্বর: ৩৬ ম্যাচ অপরাজিত থেকে টুর্নামেন্টের সবচেয়ে ফেভারিট দলগুলোর একটি হিসেবে এবারের বিশ্বকাপ শুরু করে আর্জেন্টিনা। কিন্তু তাদের ২-১ গোলে হারিয়ে পুরো বিশ্বকে চমকে দেয় সৌদি আরব। এরপর অবশ্য ঘুরে দাঁড়িয়ে এখন শেষ ষোলোর লড়াইয়ে নামতে যাচ্ছে লিওনেল মেসির দল। সৌদির মতো অঘটনের জন্ম দিয়েছে অস্ট্রেলিয়াও। ‘ডি’ গ্রুপের শেষ রাউন্ডে তারা হারিয়েছে ২০২০ সালের ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের সেমি-ফাইনালিস্ট ডেনমার্ককে। ২০০৬ সালের পর প্রথমবারের মতো নকআউট পর্বে খেলতে যাওয়া অস্ট্রেলিয়ার প্রতিপক্ষ শক্তিতে বেশ এগিয়ে থাকা আর্জেন্টিনা। শনিবার বাংলাদেশ সময় রাত একটায় শুরু ম্যাচটি। এর আগের দিন সংবাদ সম্মেলনে আর্নল্ড বললেন, লিওনেল স্কালোনির দলকে চমকে দিতে চান তারা। “গ্রুপ পর্বের ম্যাচ পেরিয়ে এসেছি আমরা। সম্পূর্ণ নতুন খেলা এখন। এক ম্যাচের লড়াই, যেকোনো কিছু ঘটতে পারে।” “আর্জেন্টিনার প্রতি কোনো ধরনের অসম্মান নেই। তবে এটা এগারো জনের বিপক্ষে এগারো জন, ১০টি নীল জার্সির বিপক্ষে ১০টি হলুদ জার্সির প্রতিদ্বন্দ্বিতা। এটা লড়াই, এটা যুদ্ধ। আমাদের সেখানে লড়তে হবে।” 

আর্জেন্টিনার বিপক্ষে এখন পর্যন্ত ৭ ম্যাচে খেলেছে অস্ট্রেলিয়া। যেখানে একটিতে জিতেছে তারা। ১৯৮৮ সালে, দুই দলের প্রথম দেখায়। ওই ম্যাচের সদস্য ছিলেন আর্নল্ড। এখন তিনি দলটি কোচ। তার কোচিংয়ে গত বছর টোকিও অলিম্পিকে আর্জেন্টিনাকে ২-০ গোলে হারায় অস্ট্রেলিয়া। আর্নল্ডের মতে, আর্জেন্টিনার বিপক্ষে মাঠে নামলে বেশি অনুপ্রাণিত থাকে অস্ট্রেলিয়া। “আমি কেবল মনে করি, অস্ট্রেলিয়ার সেরাটা বের করে আনে আর্জেন্টিনা। তাদের বিপক্ষে প্রতিবারই আমাদের পারফরম্যান্স ছিল খুবই শক্তিশালী ও ভালো। অনেক বিশ্বাস ও প্রাণশক্তি নিয়ে আমরা মাঠে নামি। নিজেদের দায়িত্বের ওপর মনযোগী থাকি আমরা।” এবারের বিশ্বকাপে ‘আন্ডারডগ’ দলগুলোর একটি অস্ট্রেলিয়া। এই তকমা ভালোই লাগে বলে জানালেন আর্নল্ড। “সাফল্য পাওয়া না পর্যন্ত সবাই-ই আন্ডারডগ। বিশ্বের প্রায় প্রতিটি দলই তাদের পথচলার কোনো না কোনো পর্যায়ে আন্ডারডগ ছিল। যতক্ষণ না সাফল্য পাওয়া যায়, ততক্ষণ আন্ডারডগ হিসেবেই দেখা হয়।” “অস্ট্রেলিয়া আন্ডারডগ এবং আমরা এটা পছন্দ করি। যখন দেয়ালে পিঠ ঠেকে যায়, কেউ আমাদের কোনো সুযোগ দেয় না, তখন অস্ট্রেলিয়ান স্পিরিট নিয়ে লড়াই করা আমাদের ভালো লাগে। এটাই আমাদের শক্তি।”

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য