Tuesday, June 28, 2022
বাড়িজাতীয়বায়োটেক স্টার্টআপ এক্সপো 'স্বনির্ভর ভারত' অভিযানকে শক্তিশালী করবে: প্রধানমন্ত্রী মোদী

বায়োটেক স্টার্টআপ এক্সপো ‘স্বনির্ভর ভারত’ অভিযানকে শক্তিশালী করবে: প্রধানমন্ত্রী মোদী

নয়াদিল্লি, ৯ জুন(হি.স) : বায়োটেক স্টার্টআপ এক্সপো-২০২২ ‘স্বনির্ভর ভারত’ অভিযানকে শক্তিশালী করবে বলে মনে করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তিনি বলেন, দেশের প্রথম বায়োটেক স্টার্টআপ এক্সপো দেশের বায়োটেক সেক্টরের ব্যাপক উন্নয়নের একটি প্রতিফলন।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর প্রগতি ময়দানে বায়োটেক স্টার্টআপ এক্সপো ২০২২-এর উদ্বোধনী ভাষণে এই দাবি জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী মোদী আরও বলেন, ভারতের জৈব-অর্থনীতি গত আট বছরে আট গুণ বেড়েছে। আমরা গত আট বছরে ১০ বিলিয়ন ডলার থেকে ৮০ বিলিয়ন ডলারে পৌঁছেছি । অর্থাৎ আট গুণ বেড়েছে। বায়োটেকের বৈশ্বিক বাস্তুতন্ত্রের শীর্ষ দশটি দেশের সারিতে যোগদান থেকে ভারত খুব বেশি দূরে নয়। তিনি বলেন, আমাদের আইটি পেশাদারদের দক্ষতা এবং উদ্ভাবনের উপর আস্থা বিশ্বে নতুন উচ্চতায় রয়েছে। এই বিশ্বাস আর এই খ্যাতি, আমরা এই দশকে ভারতের বায়োটেক সেক্টরের জন্য দেখতে পাচ্ছি।

বায়োটেকনোলজি এবং বায়োটেকনোলজি ইন্ডাস্ট্রি রিসার্চ অ্যাসিসট্যান্স কাউন্সিল (বিআইআরএসি) বিভাগের প্রচেষ্টায় দুই দিনব্যাপী এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। বিরাক প্রতিষ্ঠার দশ বছর পূর্তি উপলক্ষে এই প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়েছে। প্রদর্শনীর থিম ‘বায়োটেক স্টার্টআপ উদ্ভাবন: স্বনির্ভর ভারতের দিকে’।

এদিন প্রধানমন্ত্রী বলেন, ভারতকে বায়োটেকের ক্ষেত্রে সুযোগের দেশ হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে। এর প্রধান পাঁচটি কারণ তিনি উল্লেখ করেছেন। ভারতে বায়ো-পণ্যের ক্রমবর্ধমান চাহিদা এবং ভারতের বায়োটেক সেক্টরের সাফল্যের ট্র্যাক রেকর্ড। তিনি আরও বলেন, গত আট বছরে আমাদের দেশে স্টার্ট-আপের সংখ্যা কয়েকশ থেকে ৭০ হাজারে বেড়েছে। এই ৭০ হাজার স্টার্ট-আপগুলি প্রায় ৬০টি বিভিন্ন শিল্পে তৈরি করা হয়েছে এবং এর মধ্যে ৫ হাজারটিরও বেশি বায়োটেক স্টার্ট-আপ রয়েছে। তিনি বলেন, জৈব সার এবং জৈব বীজের মাধ্যমে আমরা কৃষকদের উৎপাদন বৃদ্ধিতে সহায়তা করতে সক্ষম হয়েছি। কৃষিকাজে ড্রোনের প্রচলন এবং দেশে প্রযুক্তিগত টেক্সটাইলের উৎপাদন বৃদ্ধির ফলে বায়োটেক দেশের উন্নয়নে বড় ভূমিকা রাখবে বলে তিনি দাবি করেছেন।

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, রাসায়নিকমুক্ত কৃষিকে উৎসাহিত করার জন্য সরকারের প্রচেষ্টাও বায়োটেক সেক্টরের জন্য নতুন সুযোগ তৈরি করছে।বায়োটেক স্টার্টআপ এক্সপো ২০২২-এ প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ডঃ জিতেন্দ্র সিং, পীযূষ গোয়েল এবং ধর্মেন্দ্র প্রধান। প্রদর্শনীতে উদ্যোক্তা, বিনিয়োগকারী, বিজ্ঞানী, গবেষক, বায়োইনকিউবেটর, নির্মাতা, নিয়ন্ত্রক, সরকারী কর্মকর্তাদের সঙ্গে সংযোগ স্থাপনের একটি প্ল্যাটফর্ম হিসেবে কাজ করবে। প্রদর্শনীতে প্রায় তিনশোটি স্টল স্থাপন করা হয়েছে। স্টলে স্বাস্থ্যসেবা, জিনোমিক্স, বায়োফার্মা, কৃষি, শিল্প বায়োটেকনোলজি, ওয়েস্ট টু ভ্যালু, ক্লিন এনার্জি ইত্যাদি ক্ষেত্রে বায়োটেকনোলজির প্রয়োগ দেখানো হয়েছে।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য