Monday, June 27, 2022
বাড়িজাতীয়২০১৪ সালের পর থেকে রাজনৈতিক ইচ্ছাশক্তি ও সংস্কারের সাক্ষী হচ্ছে দেশ :...

২০১৪ সালের পর থেকে রাজনৈতিক ইচ্ছাশক্তি ও সংস্কারের সাক্ষী হচ্ছে দেশ : প্রধানমন্ত্রী




নয়াদিল্লি, ২৬ মে (হি.স.): বর্তমানে রাজনৈতিক ইচ্ছাশক্তি ও সংস্কারের সাক্ষী হচ্ছে দেশ, এই পরিবর্তন এসেছে ২০১৪ সালের পর থেকে। বৃহস্পতিবার হায়দরাবাদের ইন্ডিয়ান স্কুল ও বিজনেসের ২০ বছর উদযাপনের অনুষ্ঠানে এ কথা বলেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

প্রধানমন্ত্রী এদিন বলেছেন, “আমরা যদি বিগত ৩ দশকের সঙ্গে গত ৮ বছরের তুলনা করি, তাহলে আমরা দেখতে পাব রাজনৈতিক ইচ্ছাশক্তি এবং অস্থিতিশীলতার অভাবের কারণে প্রয়োজন থাকা সত্ত্বেও সংস্কার করা হয়নি। দেশ বড় কোনও সিদ্ধান্ত নিতে পারেনি। ২০১৪ সালের পর থেকে ভারত রাজনৈতিক ইচ্ছাশক্তি এবং সংস্কারের সাক্ষী হচ্ছে।”

প্রধানমন্ত্রী এদিন আরও বলেছেন, “স্মার্টফোন ডেটা খরচে ভারত প্রথম অবস্থানে রয়েছে এবং বিশ্বের ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ভারত। বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম স্টার্টআপ ইকোসিস্টেম এবং তৃতীয় বৃহত্তম কনজিউমার মার্কেট রয়েছে ভারতে।” প্রধানমন্ত্রীর কথায়, “ভারত এখন প্রবৃদ্ধির প্রধান কেন্দ্র হিসেবে আবির্ভূত হচ্ছে। গত বছর, এখনও পর্যন্ত সর্বোচ্চ বিদেশি বিনিয়োগ এসেছে ভারতে। গোটা বিশ্ব এখন বুঝতে পারছে ভারত মানেই ব্যবসা।” প্রধানমন্ত্রী এদিন আরও বলেছেন, “দেশ যখন অর্থনৈতিক উন্নয়নের নতুন অধ্যায় লিখছে, তখন আমাদের আরও একটি বিষয় মাথায় রাখতে হবে।

ছোট ব্যবসায়ীদেরও সমান গুরুত্ব দিতে হবে। তাঁদের আরও বড় প্ল্যাটফর্ম দিতে হবে। এগিয়ে যাওয়ার জন্য আরও সুযোগ দিতে হবে। তাঁদের আরও বেশি করে প্রযুক্তির সঙ্গে যুক্ত হতে হবে।”

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য