Monday, March 4, 2024
বাড়িবিনোদনবিচ্ছেদের জল্পনা উড়িয়ে এক গাড়িতে অর্জুন-মালাইকা !

বিচ্ছেদের জল্পনা উড়িয়ে এক গাড়িতে অর্জুন-মালাইকা !

স্যন্দন ডিজিটেল ডেস্ক, ২০ জানুয়ারি : অর্জুন কপূর আর মালাইকা অরোরা খান বহু দিন একসঙ্গে কোথাও যাননি। যাঁদের ইনস্টাগ্রাম খুললেই দু’জনের একসঙ্গে ছবি দেখা যেত প্রায়ই, তাঁরা বহু দিন কোনও ছবিই পোস্ট করেননি। মালাইকা মুম্বইয়ের বিভিন্ন জায়গায় একাই ঘুরছিলেন ক’দিন। ছুটি কাটাতে চলে গিয়েছিলেন বোন অমৃতা অরোরার সঙ্গে। ব্যাস! সেই থেকেই জল্পনা যে, দু’জনের বিচ্ছেদ হয়ে গিয়েছে। তবে সেই খবর যে সত্যি নয়, তা কিছু দিন ধরে আভাস পাওয়া যাচ্ছিল মায়ানগরীতে। মালাইকার ঘনিষ্ঠেরা বলাবলি শুরু করেন, ‘সবই গুজব! দু’জনে ভীষণ ভাল আছে’। তাঁরা মুখে বললেও এই কথার কোনও প্রমাণ পাওয়া যাচ্ছিল না। অবশেষে শুক্রবার রাতে দু’জনকে একসঙ্গে ‘ডেট’-এ যেতে দেখে নিন্দকদের মুখ বন্ধ হল।

দু’জনেই এক গাড়িতে বেরিয়েছিলেন শুক্রবার রাতে। রাস্তায় যথারীতি ছবিশিকারিদের নজরে পড়ে যান তাঁরা। এবং তাঁদের নিশিযাপনের ভিডিয়ো ছড়িয়ে পড়ে মুহূর্তে। কিন্তু যাঁরা গত সাত-আট বছর ধরে গভীর সম্পর্কে রয়েছেন, তাঁদের বিচ্ছেদের গুঞ্জন ছড়াল কী করে? শোনা যাচ্ছিল, যত গন্ডগোল বিয়ে নিয়ে। এক জন ফের বিয়ের পিঁড়িতে বসতে চান। অন্য জন এখনই সে পথে হাঁটতে নারাজ। ফলে মনমালিন্য লেগেই থাকত। তার উপর মালাইকার প্রাক্তন স্বামী আরবাজ় খান সম্প্রতি দ্বিতীয় বার বিয়ে সারেন তাঁর প্রিয়তমা সুরির সঙ্গে। দু’জনের বিয়ের ভিডিয়ো দেখতে দেখতে বিভিন্ন মহলে ফের আলোচনা শুরু হয় অর্জুন-মালাইকার বিয়ে নিয়ে।

মালাইকা কয়েক দিন নিজেকে গুটিয়ে নিয়েছিলেন সব কিছু থেকেই। তবে তার কিছু দিনের মধ্যেই তাঁর ঘনিষ্ঠ বন্ধু ফারাহ খান একটি ভিডিয়ো পোস্ট করেন সমাজমাধ্যমে। সেখানে একটি শোয়ের মেকআপ রুমে কারা কী টিফিন এনেছেন, তা অনুরাগীদের দেখাচ্ছিলেন তিনি। সেই দলে ছিলেন মালাইকাও। সেখানেই ফারাহ মালাইকার টিফিন বক্স দেখিয়ে বলেন, অর্জুনের বাড়ি থেকে দারুণ খাবার এসেছে তাঁর জন্য। তখনই বোঝা যায়, দু’জনের মধ্যে মান-অভিমানের পালা চললেও বিচ্ছেদ আদৌ হয়নি। মাঝে দু’জনে এক বন্ধুর বিয়তেও তাঁরা একসঙ্গে ছবি তুলেছিলেন। শুক্রবার রাতে তাঁদের দু’জনকে একসঙ্গে দেখে তাঁরা যে এখনও একসঙ্গে রয়েছেন, সেই খবরই আরও পাকা হয়।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য