Saturday, June 15, 2024
বাড়িরাজ্য১৪ দিন পর বিশ্রামগঞ্জ পুলিশের হাতে আটক এন ডি পি এস মামলার...

১৪ দিন পর বিশ্রামগঞ্জ পুলিশের হাতে আটক এন ডি পি এস মামলার পলাতক অভিযুক্ত

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ৪ মে : ১৪ দিন পর বিশ্রামগঞ্জ থানার পুলিশের হাতে আটক এন ডি পি এস মামলার পলাতক অভিযুক্ত সনজিৎ দেব। বাড়ি বিশ্রামগঞ্জ থানার অন্তর্গত চেছুড়ি মাই গ্রাম পঞ্চায়েতের সিলোটিয়া মুড়া এলাকায়। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে বিশ্রামগঞ্জ থানার পুলিশ শনিবার দুপুরবেলা সিপাহীজলা নৌকা ঘাট সংলগ্ন জাতীয় সড়কের পাশ থেকে সঞ্জিৎ দেবকে আটক করে।

বিশ্রামগঞ্জ থানায় গত  ২১ এপ্রিল দুপুরবেলায় গোপন সূত্রে খবর পেয়ে বিশ্রামগঞ্জ থানার পুলিশ এবং টিএসআর বাহিনী হানা দেয় চড়িলাম ব্লকের চেছুড়ি মাই গ্রাম পঞ্চায়েতের সিলোটিয়া মুড়া এলাকায় সনজিৎ দেবের বাড়িতে। অভিযানে পুলিশ সঞ্জীত দেবের ঘর থেকে ৫০ লক্ষ টাকার নেশা জাতীয় দ্রব্য এসকফ এবং ফ্যান্সিডিল উদ্ধার করে। বাড়ি থেকে পালিয়ে যায় বাড়ির মালিক সনজিৎ দেব। পুলিশ নেশা জাতীয় সামগ্রী গুলো সহ সঞ্জিত দেবের স্ত্রী শিপ্রা দেবকে আটক করে বিশ্রামগঞ্জ থানায় নিয়ে আসে। ২২ এপ্রিল বিশালগড় মহকুমা আদালতে শিপ্রা দেবকে সোপর্দ করা হলে আদালত তাকে জেল হাজতের নির্দেশ দেয়। এখন পর্যন্ত শিপ্রা দেব জেল হাজতে রয়েছে।

পলাতক ছিল তার স্বামী সঞ্জীত দেব। বিশ্রামগঞ্জ থানার পুলিশ সনজিৎ দেব এবং তার স্ত্রী শিপ্রা দেবের বিরুদ্ধে এন ডি পি এস মামলা দায়ের করে।

বিশ্রামগঞ্জ থানার পুলিশ সঞ্জিত দেবকে জালে তোলার জন্য বহুদিন ধরেই জাল বিছিয়ে ছিল। কিন্তু কোনভাবেই তাকে জালে তোলা যাচ্ছিল না। শনিবার দিন দুপুর বেলা সনজিত দেবকে আটক করে বিশ্রামগঞ্জ থানায় নিয়ে আসে পুলিশ। তিনদিনের রিমান্ড চেয়ে বিশালগড় মহকুমা আদালতে সোপর্দ করা হয় বলে জানিয়েছেন বিশ্রামগঞ্জ থানার ওসি সুবিমল দেবনাথ। তবে এত বিশাল পরিমাণ টাকার নেশা জাতীয় দ্রব্যগুলো যে সহজ-সরল গৃহস্থ সনজিৎ এবং শিপ্রা দেবের নয় তা হলফ করে বলতে পারে এলাকাবাসী থেকে শুরু করে পুলিশ। নেশার সঙ্গে জড়িতদের কোনোভাবেই ছাড় দেওয়া হবে না বলেও অকপটে স্বীকার করেছেন বিশ্রামগঞ্জ থানার পুলিশ।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য