Sunday, April 21, 2024
বাড়িরাজ্যমেয়ে বিয়ের সাহায্য গিলে খেলো গ্রাম প্রধান

মেয়ে বিয়ের সাহায্য গিলে খেলো গ্রাম প্রধান

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ৬ মার্চ : লোভ সামলাতে না পেরে মেয়ে বিয়ের সাহায্য পর্যন্ত গিলে খেলেন পঞ্চায়েত প্রধান পরিতোষ দাস। অভিযোগ মেলাঘর তেলকাজলা গ্রাম পঞ্চায়েতের ৫ নং ওয়ার্ডের শ্রীমতি পাড়ার হত দরিদ্র পিতা সমীর ঘোষের। অভিযোগ গত কিছুদিন আগে সোনামুড়া মহকুমার মেলাঘর তেল কাজলা গ্রাম পঞ্চায়েতের ৫ নং ওয়ার্ডের শ্রীমতি পাড়ার হত দরিদ্র সমীর ঘোষের মেয়ের বিয়ের জন্য স্থানীয় তেল কাজলা গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান পরিতোষ মজুমদারের কাছে অনুরোধ জানান।

সেই অনুসারে পঞ্চায়েত প্রধান পরিতোষ দাস এলাকার একটি জলের পাম্প মেশিন বসানোর কাজের ঠিকাদারের কাছে অনুরোধ করে এলাকার ওই গরিব পরিবারের মেয়েটির বিয়ের জন্য কিছু আর্থিক সাহায্য করার জন্য। মেয়ের বিয়ের আর্থিক সাহায্যের কথা শুনে ঠিকেদার পঞ্চায়েত প্রধান পরিতোষ মজুমদারের কাছে ১০ হাজার টাকা তুলে দেয়। যখন সমীর ঘোষ উনার মেয়ে বিয়ের ঠিক প্রাক মুহূর্তে পঞ্চায়েত প্রধানের কাছে সাহায্যের টাকার জন্য যায় তখন পঞ্চায়েত প্রধান পরিতোষ দাস সাহায্যের জন্য কোন টাকা দেয়নি। পঞ্চায়েত প্রধান পরিতোষ মজুমদারের এই কর্মকাণ্ডের কথা এলাকায় জানাজানি হতেই মেয়ের বিয়ের সাহায্যের টাকা দেওয়ার জন্য চাপ সৃষ্টি করা হয়।

অবশেষে মেয়ের বিয়ের পর অর্থাৎ বুধবার মেয়েটির বাবা সমীর ঘোষ পঞ্চায়েত প্রধান পরিতোষ মজুমদারের কাছে টাকা আনতে গেলে মাত্র চার হাজার টাকা দেয়। আর বাকি ৬ হাজার টাকা পঞ্চায়েত প্রধান পরিতোষ মজুমদার হাফিজ করে দেয় বলে অভিযোগ। তবে একজন প্রধানের এই ধরনের কর্মকাণ্ডে গোটা এলাকা জুড়ে ছিঃ ছিঃ রব উঠেছে। মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়ার কথা ছিল, সেই জায়গায় দাঁড়িয়ে পঞ্চায়েত প্রধান নিজেই এক গরিব মেয়ে বিয়ের সাহায্যের টাকা হাফেজ করে দিল। তাহলে কি পঞ্চায়েত প্রধান পরিতোষ মজুমদার প্রমাণ করতে চাইছে উনার মত পঞ্চায়েত প্রধানরা এলাকার মানুষদেরকে সাহায্য করার পরিবর্তে সেই সাহায্যের টাকা হাফিজ করতে সবচেয়ে বেশি পারদর্শী। হতদরিদ্র সমীর ঘোষ বুধবার সংবাদ মাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে মেয়ের বিয়ের সাহায্যের বাকি ছয় হাজার টাকা ফিরে পেতে দাবি করলেন।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য