Wednesday, June 19, 2024
বাড়িরাজ্যনাম না উল্লেখ করে শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত সুদীপকে কাঠগড়ায় দাঁড় করালেন...

নাম না উল্লেখ করে শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত সুদীপকে কাঠগড়ায় দাঁড় করালেন মুখ্যমন্ত্রী

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ২৬ আগস্ট : যারা কংগ্রেস থেকে বিজেপিতে গিয়ে যোগদান করেছিল তারা ঠিকই বুঝে গেছে ভারতীয় জনতা পার্টিতে থাকলে কোন সুবিধা করতে পারবে না। তাই শেষ পর্যন্ত আবারো চলে গেলেন কংগ্রেসে। শনিবার উপ নির্বাচনকে সামনে রেখে ভারতীয় জনতা পার্টি ২০ বক্সনগর মন্ডলের উদ্যোগে বক্সনগরে পৃষ্ঠা প্রমুখ সম্মেলনে বক্তব্য রেখে এই কথা বলেন মুখ্যমন্ত্রী ডাক্তার মানিক সাহা।

 নাম না উল্লেখ করে বিধায়ক সুদীপ রায় বর্মনকে এদিন কাঠ গড়ায় দাঁড় করিয়ে মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন, পবিত্র বিধানসভায় মানদণ্ড কাঁধে নিয়ে পালিয়ে গিয়েছিল। এই রাজনীতি মুখ্যমন্ত্রীর আসনে বসে ডাক্তার মানিক সাহা করতে চান না বলে জানান তিনি নিজে। এবং মুখ্যমন্ত্রী আক্রমণ করে আরো বলেন মিথ্যে কথা বলে তারাই রাজনীতি করতেই পারে। কিন্তু ভারতীয় জনতা পার্টিতে এ ধরনের মিথ্যার কোন আশ্রয় নেই। ভারতীয় জনতা পার্টি একমাত্র কাজ হল উন্নয়ন। মুখ্যমন্ত্রী বামেদেরও তীর্ষক ভাষায় আক্রমণ করে বলেন, বিরোধীরা এখন আর মানুষের কাছে যেতে পারছে না। কারণ মানুষের কাছে গিয়ে তাদের আর কিছু বলার নেই। কারণ রাজ্যে বিজেপি সরকার প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পর থেকে সারা রাজ্যে চলছে শুধু উন্নয়ন। তাই মানুষ সিদ্ধান্ত নিয়েছে আসন্ন উপ নির্বাচনে শুধু বিজেপিকে ভোট দেবে।

কারণ এটা সাবকা সাথ সবকা বিকাশের পার্টি। মুখ্যমন্ত্রী বলেন রাজ্যে কমিউনিস্টদের সরকার ক্ষমতায় থাকা কালিন সামাজিক ভাতা ছিল ৭০০ টাকা। বর্তমান সরকারের সময়ে সেই সামাজিক ভাতা বৃদ্ধি করে দুই হাজার টাকা করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনায় বক্সনগরে ৬ হাজার ৭২৭ টি ঘড় বক্সনগরে প্রদান করা হয়েছে। ডাবল ইঞ্জিনের সরকার রাজ্যে ক্ষমতায় থাকার ফলে রাজ্যের সার্বিক উন্নয়ন দ্রুত গতিতে চলছে। তাই এখনো যারা কংগ্রেস, সিপিআইএম সহ অন্যান্য বিরোধী দলের সাথে রয়েছেন তাদেরকে দেরি না করে বিজেপি দলে সামিল হওয়ার জন্য আহ্বান জানান মুখ্যমন্ত্রী।অপরদিকে প্রদেশ বিজেপি সভাপতি রাজীব ভট্টাচার্য বলেন বক্সনগরের মানুষ কোনকিছু ভুলে যাবে না। বক্সনগরের মানুষ ঋন পরিশোধ করবে। ২০২৩ সালের বিধানসভা নির্বাচনে কংগ্রেস ও কমিউনিস্টের আতাতকে যে ভাবে মানুষ শিক্ষা দিয়েছে। একই ভাবে বক্সনগরের মানুষ বক্সনগর বিধানসভা কেন্দ্রের উপ নির্বাচনে শিক্ষা দেবে। বক্সনগরের মানুষ তৈরি হয়ে গেছে বিজেপি প্রার্থীকে ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করে বিধানসভায় পাঠানোর জন্য।আয়োজিত এ দিনের সভায় এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন উপদেশ বিজেপি সভাপতি রাজীব ভট্টাচার্যী, প্রাক্তন উপ মুখ্যমন্ত্রী যীষ্ণু দেববর্মা, সদ্য কংগ্রেস ছেড়ে আসা বিল্লাল মিয়া সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য