Wednesday, May 29, 2024
বাড়িখেলাদায়িত্বে থেকে যেতে টেন হাগের ভরসা মালিকপক্ষের ‘কমন সেন্স’

দায়িত্বে থেকে যেতে টেন হাগের ভরসা মালিকপক্ষের ‘কমন সেন্স’

স্যন্দন ডিজিটেল ডেস্ক, ১১ মে: চোট-জর্জর মৌসুমে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড এখনও পর্যন্ত ব্যর্থ চরমভাবে। প্রিমিয়ার লিগের সফলতম দলটি এবার পয়েন্ট তালিকায় এখন আছে আট নম্বরে। চ্যাম্পিয়ন্স লিগ বা ইউরোপা লিগে খেলার যোগ্যতা অর্জন করাও নাগালের বাইরে। কনফারেন্স লিগে খেলা নিয়েই এখন টানাটানি!এই মৌসুমে লিগে ১৩টি ম্যাচ হেরে গেছে তারা, ক্লাবের ইতিহাসে যা প্রিমিয়ার লিগের এক মৌসুমে সবচেয়ে বেশি পরাজয়ের রেকর্ড। সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে এখনও পর্যন্ত এবার তারা গোল হজম করেছে ৮১টি। সেই ১৯৭৬-৭৭ মৌসুমের পর এত বেশি গোল তাদের জালে ঢোকেনি কোনো মৌসুমেই।

সবশেষ ম্যাচে ক্রিস্টাল প্যালেসের কাছে ৪-০ গোলে বিধ্বস্ত হওয়ার পর ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের কিংবদন্তি পল স্কোলস, ক্লাবের সাবেক ফুটবলার অ্যাশলি ইয়াং, মাইকেল ওয়েনরা সরাসরিই বলেছেন, টেন হাগকে আর কোচের দায়িত্বে রাখার কোনো কারণ নেই। সংবাদমাধ্যমে ও সমর্থকদের মধ্যে কোচের তুমুল সমালোচনা হয়ে আসছে তো আরও আগে থেকেই।সব মিলিয়ে ধারণা করা হচ্ছে, স্যার জিম র‌্যাটক্লিফ ও ক্লাবের নতুন মালিকপক্ষ হয়তো বরখাস্ত করবেন কোচকে।তবে টেন হাগ শুক্রবার সংবাদ সম্মেলনে বললেন, মালিকপক্ষের বিবেচনাবোধের ওপর তার ভরসা আছে। দলের বাজে পারফরম্যান্সের পেছনে চোটের দায় দিয়েছেন তিনি আগেও। আরও একবার তা তুলে ধরলেন কোচ।

“আমার মনে হয়, তাদের ‘কমন সেন্স’ আছে। তারা যখন দেখবে যে, এই মৌসুমে ৩২টি ভিন্ন রক্ষণভাগ নিয়ে খেলতে হয়েছে, ৮ জন সেন্টার ব্যাককে হারাতে হয়েছে (চোটের কারণে), যখন তারা দেখবে যে লেফট ফুল ব্যাক একজনও ছিল না আমাদের, তারা বুঝতে পারবে যে আমাদের ফলাফলে এসবের নেতিবাচক প্রভাব পড়বেই।”এই মৌসুমে একটি ট্রফির লড়াইয়ে এখনও আছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। এফএ কাপের ফাইনালে উঠেছে তারা। অপ্রতিরোধ্য ম্যানচেস্টার সিটির সঙ্গে যদিও ফাইনালে পেরে ওঠা হবে খুব কঠিন, তবু এটিকে প্রাপ্তির খাতায় যোগ করতে চান টেন হাগ।“এখনও পর্যন্ত আমরা একটি শিরোপার লড়াইয়ে আছি, এফএ কাপের ফাইনালে খেলব, বড় এক ম্যাচ যা। গোটা মৌসুমের উল্লেখযোগ্য দিক হতে পারে এটি।”

“তবে আমরা জানি যে, প্রত্যাশা অনুযায়ী পারফর্ম করতে পারছি না। আমি বাস্তববাদী মানুষ। যখন সব দিক দেখি, বিশ্লেষণ করি, খুবই পরিষ্কার হয়ে ফুটে ওঠে যে, এতগুলি চোট সমস্যা নিয়ে কোনো দলই পারফর্ম করতে পারবে না।”জিম র‌্যাটক্লিফ বা নতুন মালিকপক্ষ থেকে এখনও প্রকাশ্যে টেন হাগের সমর্থনে কিছু বলা হয়নি। তারা সরাসরি কোচের পাশে দাঁড়ালে তার জন্য তা সহায়ক হবে কি না, এই প্রশ্নটি উঠলেও পাত্তা দিলেন না ৫৪ বছর বয়সী কোচ।“এই প্রশ্ন তো মালিকদেরই করতে হবে, আমাকে নয়। তারা এটা করবে নাকি করবে না, সেটার পরোয়া করি না। আমার দলের উন্নতি ও অগ্রগতি নিয়ে কাজ করছি আমি, এটাই আমার দায়িত্ব।”প্রিমিয়ার লিগে রোববার আরেকটি কঠিন পরীক্ষা টেন হাগের দলের জন্য। মুখোমুখি হবে তারা শিরোপার লড়াইয়ে থাকা আর্সেনালের।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য