Tuesday, May 28, 2024
বাড়িখেলাশুধু ব্রুনো ফের্নান্দেসকে দায় দিচ্ছেন না টেন হাগ

শুধু ব্রুনো ফের্নান্দেসকে দায় দিচ্ছেন না টেন হাগ

স্যন্দন ডিজিটেল ডেস্ক,,২৮ এপ্রিল: ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচে বৃহস্পতিবার টটেনহ্যাম হটস্পরের মাঠে প্রথমার্ধে ২-০তে এগিয়ে গিয়েও পুরো পয়েন্ট পায়নি ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। দারুণ প্রত্যাবর্তনে টটেনহ্যাম ম্যাচ শেষ করে সমতায়।জেডন স্যানচো সপ্তম মিনিটে ইউনাইটেডকে এগিয়ে দেওয়ার পর প্রথমার্ধের শেষ দিকে ব্যবধান বাড়ান মার্কাস র‌্যাশফোর্ড। দ্বিতীয়ার্ধে পেদ্রো পোরো দুর্দান্ত গোলে ব্যবধান কমানোর পর টটেনহ্যামকে সমতায় ফেরান সন-হিউং-মিন।তবে পোরোর গোলটির পরই আবার দুই গোলের ব্যবধান গড়ার সুযোগ পায় ইউনাইটেড। ক্রিস্তিয়ান এরিকসেনের পাস ধরে বক্সের ভেতর দারুণ স্কিলে একজনকে কাটিয়ে সামনে এগিয়ে যান ফের্নান্দোস। তার সামনে তখন কেবল টটেনহ্যাম গোলকিপার। ফের্নান্দেসের শট রুখতেও পারেননি গোলকিপার। কিন্তু একটু উঁচু হয়ে যাওয়া শটে বল ক্রসবারে লেগে ফিরে আসে। ফিরতি বলে অ্যারন-ওয়ান বিসাকা নিচু হয়ে হেড করলেও ডাইভ দিয়ে রক্ষা করেন গোলকিপার।ম্যাচের পর স্বাভাবিকভাবেই ওই গোল না পাওয়ার আফসোস ধরা পড়ল টেন হাগের কণ্ঠে।

“অবশ্যই ২-০তে এগিয়ে যাওয়ার পর ড্র করাটাই কিছুটা হতাশার। তবে আমাদের মেনে নিতেই হবে। ২-১ হওয়ার পর আমাদের সুযোগ ছিল গোল করে তা ৩-১ করার, কিন্তু আমরা পারিনি। পরে আরেকটি গোল হজম করে বসি।”“ম্যাচের আগে যদি ড্র বলা হতো, তাহলে হয়তো মেনে নিতাম। তবে যেভাবে ম্যাচ এগিয়েছে, তাতে আমাদের জেতা উচিত ছিল। তবে ৯০ মিনিট ধরে আমরা ভালো খেলতে পারিনি। প্রথমার্ধে ২-০ গোলে এগিয়ে গেলেও সত্যি বলতে, আমার মতে, খুব ভালো আমরা খেলিনি। তার পরও ২-০তে এগিয়ে যাই। তবে দ্বিতীয়ার্ধে আরেকটি গোল করা আমাদের উচিত ছিল।”কাঙ্ক্ষিত গোলটি করার সম্ভাবনা জাগিয়েও যিনি পারেননি, সেই ব্রুনো ফের্নান্দেসকে অবশ্য দায় দিচ্ছেন না ইউনাইটেড কোচ।“গোলের সুযোগ হাতছাড়া করাটা অবশ্যই খুবই হতাশার। তবে শুধু একজনকে (ফের্নান্দেস) দোষ দিয়ে লাভ নেই। আমরা যথেষ্ট নিখুঁত ছিলাম না এবং আরেকটি গোল করা প্রয়োজনীয় ছিল। আমরা যে গোলগুলি হজম করেছি, সেগুলোও খুব সহজে দিয়েছি। এগুলো অনায়াসেই এড়ানো যেত।”“আমি বুঝতে পারছিলাম যে আমরা নিয়ন্ত্রণ হারিয়েছি (দ্বিতীয়ার্ধে), বদলি ফুটবলার তৈরি রেখেছিলাম। কিন্তু ততক্ষণে দেরি হয়ে যায়। তবে সব মিলিয়ে এই সপ্তাহে আমাদের জন্য ড্র খুব খারাপ ফল নয়।”‘এই সপ্তাহে ড্র খারাপ নয়’ বলতে টেন হাগ বুঝিয়েছেন দলের ক্লান্তি-শ্রান্তির কথা। গত রোববার এফএ কাপের ম্যাচে ব্রাইটনের বিপক্ষে ১২০ মিনিট খেলতে হয়েছে দলকে। এরপর ফল এসেছে টাইব্রেকারে। এরপর বৃহস্পতিবার আরেকটি বড় ম্যাচ। তবে সরাসরি এই প্রশ্নে আবার ক্লান্তিকে দায় দিতে চাইলেন না ইউনাইটেড কোচ।“প্রিমিয়ার লিগের সবচেয়ে জঘন্য সূচি আমাদের এবং এটা বদলাবে না। এটা মেনে নিতেই হবে। এটা অজুহাত হতে পারে না। রিকভারির জন্য যথেষ্ট সময় ছিল আমাদের। ফুটবলারদের তৈরি হতেই হবে, আজকে আমরা যা ছিলাম না। কেউ কেউ হয়তো ভেবেছিলাম, ৯০ শতাংশ তৈরি থাকলেই চলবে। আমরা মনোযোগ হারিয়েছি, এজন্যই গোল হজম করেছি। ঠিকঠাক পজিশনে আমরা থাকতে পারিনি। একটি মুহূর্তের জন্যও এটা করার সুযোগ নেই।”“হ্যাঁ, ফুটবলাররা রোবট নয় এবং এই সূচি খুবই কঠিন। তবে ম্যান ইউনাইটেডের হয়ে খেলতে হলে এবং প্রতিপক্ষের মাঠে নামলে, সবসময়ই সবটুকু উজাড় করে দিয়ে খেলতে হবে। খেলোয়াড় হিসেবে প্রতিটি ম্যাচ, প্রতিটি লড়াই, প্রতিটি যুদ্ধের জন্য তৈরি থাকতে হবে।”এই ড্রয়ের পর ৩১ ম্যাচে ৬০ পয়েন্ট নিয়ে চারে আছে ইউনাইটেড। দুই ম্যাচ বেশি খেলে ছয় পয়েন্ট পেছনে থেকে পাঁচে টটেনহ্যাম।  

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য