Tuesday, February 27, 2024
বাড়িজাতীয়সম্প্রতি প্রকাশ্যে এসেছে জ্ঞানবাপী মসজিদের ‘বৈজ্ঞানিক সমীক্ষা’র রিপোর্ট

সম্প্রতি প্রকাশ্যে এসেছে জ্ঞানবাপী মসজিদের ‘বৈজ্ঞানিক সমীক্ষা’র রিপোর্ট

স্যন্দন ডিজিটেল ডেস্ক, ২৯ জানুয়ারি : জ্ঞানবাপী মসজিদের ওজুখানায় রয়েছে ‘শিবলিঙ্গ’। যে জায়গাটির পূর্ণাঙ্গ সমীক্ষা প্রয়োজন। এমন দাবি নিয়েই এবার সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হল হিন্দু পক্ষ। তাদের আবেদন, আর্কিওলজিকাল সার্ভে অফ ইন্ডিয়ার ডিরেক্টর জেনারেলকে যেন ওই এলাকাটির খুঁটিনাটি খতিয়ে দেখার নির্দেশ দেয় শীর্ষ আদালত।

সম্প্রতি প্রকাশ্যে এসেছে জ্ঞানবাপী মসজিদের ‘বৈজ্ঞানিক সমীক্ষা’র রিপোর্ট। রিপোর্ট জানাচ্ছে, বারাণসীর জ্ঞানবাপী মসজিদের ভিতর হিন্দু দেবদেবীর মূর্তির অস্তিত্ব খুঁজে পাওয়া গিয়েছে। হনুমান, গণেশ এবং নন্দীর মতো মূর্তি জ্ঞানবাপীর অন্দরে মিলেছে। শুধু তাই নয়, ওজুখানা চত্বরে অসম্পূর্ণ শিবলিঙ্গের অস্তিত্বও পাওয়া গিয়েছে। এই রিপোর্টকে সামনে রেখে ইতিমধ্যেই মুসলিম পক্ষের কাছে জ্ঞানবাপী হস্তান্তরের দাবি জানিয়েছে বিশ্ব হিন্দু পরিষদ। একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে বিশ্ব হিন্দু পরিষদের তরফে দাবি করা হয়, এএসআইয়ের হাতে যে সমস্ত প্রমাণ এসে পৌঁছেছে, তাতে এই উপসংহারে আসাই যায় যে এটি আসলে হিন্দু মন্দির। হিন্দু ধর্মাবলম্বীরাই এখানে আরাধনা করতেন। ভিএইচপির কার্যকরী সভাপতি অলোক কুমার জানান, ১৯৯১ সালের ‘ধর্মীয় উপাসনাস্থল রক্ষা আইন’ মেনেও তাই এই স্থানকে হিন্দু মন্দির বলে ঘোষণা করা উচিত। পাশাপাশি সেখানে হিন্দুদের পুজো করার অনুমতিও দেওয়ার দাবি তোলেন তিনি।

এবার ওজুখানার ‘রহস্য উন্মোচনে’র আবেদন নিয়ে শীর্ষ আদালতের দ্বারস্থ হিন্দু পক্ষ। তাদের তরফে মামলাকারীর আর্জি, এএসআই-কে ওই চত্বরটি ভালোভাবে পরীক্ষানিরীক্ষা করার অনুমতি দেওয়া হোক। সেখানে থাকা ‘শিবলিঙ্গ’কে অক্ষত রেখেই যেন এই সমীক্ষা করা হয়।
যদিও এএসআইয়ের রিপোর্টকেই চূড়ান্ত বলে ধরে নিতে রাজি নয় মুসলিম পক্ষ। বরং তারা এই রিপোর্ট নিয়ে সন্দীহান। তাদের দাবি, এএসআই তার চেয়ে নতুন কিছুই পায়নি। শুধু নতুন করে সমস্ত মাপঝোপের বিস্তারিত তথ্য দিয়েছে মাত্র।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য