৪৮ ঘন্টায় সংক্রমণ ৪২০

স্যন্দন প্রতিনিধি। আগরতলা। ২ মে : ২০০ গুন্ডি ডিঙিয়ে করোনায় সংক্রমিত সংখ্যা ২৫০ দিকে এগিয়ে চলেছে। সংক্রমনের ঊর্ধ্বগতি মে মাসকে চ্যালেঞ্জের মুখে ফেলে দেবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। রবিবার রাজ্যে নতুন করে সংক্রমিত হয়েছে ২৪৭ জন। ২৪ ঘন্টায় সংক্রমনের সংখ্যা ১৭৩ থেকে এক লাফে ২৪৭ -তে পা রেখেছে। পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃত্যু। মৃত্যু হয়েছে ১ জনের। নমুনা পরীক্ষা হয় ৫,৩১৮ জনের। সুস্থ হয় ৬২ জন।

এবং সুস্থতার হার ৯৪.৯১ শতাংশ। এদিকে শনিবার বুলেটিনে প্রকাশ করা হয়েছে সংক্রমিত হয়েছে ১৭৩ জন। মৃত্যু হয়েছে ১ জনের। নমুনা পরীক্ষা হয় ৪,৩৬০ জনের। আরোগ্য হয় ৪১ জন। সুস্থহার ৯৫.৪০ শতাংশ। অর্থাৎ গত দু'দিনে সংক্রমণের সংখ্যা ৪২০ জন। ১৮ বছর থেকে ৪৪ উর্ধ্বে সকলকে ১ মে থেকে ভ্যাকসিন দেওয়ার কথা থাকলেও দেওয়া সম্ভব হয়নি। বহু যুবক যুবতী ভ্যাকসিন সেন্টারে গিয়ে ফিরে আসতে হয়।  কারণ গোটা দেশ চলছে ভ্যাকসিনের আকাল। এবং আগরতলা পুর নিগমের এলাকায় সংক্রমনের সংখ্যা সর্বাধিক। এ এম সি এলাকায় ভ্যাকসিনের আওতায় আনতে লাগু হয়েছিল নমুনা পরীক্ষা করে ভ্যাকসিন প্রদান করার। ২০৬ টি সেন্টারে লাগু হয় নিয়মটি। কিন্তু একদিন অতিক্রান্ত হতেই নমুনা পরীক্ষা করে ভ্যাকসিন নেওয়ার সিদ্ধান্তের পরিবর্তন হয় স্বাস্থ্য দপ্তরের। এতে করে ভ্যাকসিন নেওয়ার আগে ভ্যাকসিন গ্রহণকারী করোনা পজেটিভ কিনা তা শনাক্ত হতো। কারণ করোনা পজিটিভ রোগীর যদি ভ্যাকসিন গ্রহণ করে তাহলে শারীরিক অনেক সমস্যা দেখা দিতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করে স্বাস্থ্যকর্মীরা। কিন্তু করোনার ঊর্ধ্বমুখী গ্রাফে চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।