সেরাম ইনস্টিটিউটে আগুনে পুড়ে মৃত্যু পাঁচজনের, ছ'তলা থেকে দেহ উদ্ধার

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক, ২১জানুয়ারি: পুণের  সেরাম ইনস্টিটিউটে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে। পুণের মেয়র মুরলীধর মোহল জানিয়েছেন, বিল্ডিং-এর ছতলা থেকে ছজনের অগ্নিদগ্ধ দেহ উদ্ধার হয়েছে। তবে তাঁদের পরিচয় এখনও জানা যায়নি। মহারাষ্ট্রের  উপমুখ্যমন্ত্রী অজিত পাওয়ার  সেরাম ইনস্টিটিউটে গিয়ে উদ্ধারকাজে নজর রাখবেন বলে জানা যাচ্ছে। সন্ধ্য়ে সাড়ে সাতটা নাগাদ তিনি সেরাম ইনস্টিটিউটে পৌঁছবেন বলে জানা যাচ্ছে। 

দমকলের দশটি ইঞ্জিন আগুন নেভানোর চেষ্টা করছে। কালো ধোয়ায়া এলাকা ঢেকে গিয়েছে। রাসায়নিক পদার্থ থেকেই এত ধোয়ার সৃষ্টি হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে অনুমান করা হচ্ছে। পুণের  Serum Institute of India এই বিল্ডিংয়ে করোনার ভ্যাখসিন Covishield তৈরি হচ্ছিল। সেরাম ইনস্টিটিউটের সিইও আদার পুনাওয়ালা (Adar Poonawalla) টুইটে জানিয়েছেন, দুর্ঘটনার খবর আমরা জানতে পেরেছি। জানা যাচ্ছে, এই দুর্ঘটনায় প্রাণহানিও হয়েছে। মৃতদের পরিবারের প্রতি আমরা গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি।

আগুন লাগার কারণ এখনও স্পষ্ট হয়নি। তবে মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ভব ঠাকরে  জানিয়েছেন, যেখানে ভ্যাকসিন তৈরির কাজ চলছিল সেখানে আগুন লাগেনি। যে ব্লিডিংয়ে আগুন লেগেছে সেখানে বিসিজি-র ভ্যাকসিন তৈরি হয়। আগুন আপাতত নিয়ন্ত্রণে বলে জানিয়েছেন তিনি। দুপুর ২টো বেজে ৪৫ মিনিট নাগাদ আগুন লাগার খবর পায় দমকল ও পুলিস। জানা গিয়েছে, এই বিল্ডিংয়ে ভ্যাকসিন মজুত করা ছিল না। তবে আগউ পুরো নিভলেই তদন্ত শুরু হবে বলে পুলিসের তরফে জানানো হয়েছে। আগুন লেগেছে নির্মিয়মান ইমারতে।