সব জেনেও কেন আগাম ব্যবস্থা নেওয়া হল না? প্রশ্ন তোলার পরই মোদির কমিটি থেকে পদত্যাগ ভাইরোলজিস্টের

 

 

 

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক, ১৭ মে : কেন্দ্রীয় সরকারের একটি কোর কমিটি থেকে পদত্যাগ করলেন বিশিষ্ট ভাইরোলজিস্ট শাহিদ জামিল । করোনাভাইরাসের ভ্যারিয়েন্ট পরীক্ষা নিরীক্ষায় একটি কমিটি গড়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী। কিন্তু কেন হঠাৎ এই সিদ্ধান্ত! জানাতে চাননি ডাঃ শাহিদ জামিল।  যে ফোরামে তিনি কাজ করছিলেন সেটি হল INSACOG। জাতীয় স্তরের এক সংবাদ মাধ্যমকে শাহিদ জামিল বলেছেন, ''এই নতুন ভ্যারিয়েন্ট নিয়ে আগেই কেন্দ্রীয় সরকারকে সতর্ক করা হয়েছিল। বলা হয়েছিল, মার্চের গোড়াতেই যে দেশে করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের কবলে পড়তে চলেছে। কিন্তু কর্ণপাত করা হয়নি''। 

শাহিদ জানিয়েছেন, ভারতে করোনা ভাইরাসের "ডবল মিউট্যান্ট ভ্যারিয়েন্ট" পাওয়া গিয়েছে। যার বৃদ্ধিতেই নাজেহাল ভারত। দৈনিক মৃতের সংখ্যা ৪ হাজারের নিচে নামছেই নয়''।শাহিদ জামিল বলেছিলেন, 'E484K নামে আরও একটি মিউট্যান্ট আছে। যার কার্য ক্ষমতা কম হলেও  সেটিও যথেষ্ট সিদ্ধহস্ত মানুষকে কাবু করার জন্য। পাশাপাশি তিনি প্রশ্ন তুলেছিলেন 'সতর্কতা সত্ত্বেও কেন নেওয়া হল না ব্যবস্থা?'প্রসঙ্গত কোভিড মোকাবিলায় ভারতের কেন্দ্র যে বেসামাল হয়ে পড়েছে তা নিয়ে আন্তর্জাতিক স্তরেও সমালোচনার ঝড় উঠেছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা স্পষ্ট করে জানিয়েছে দ্বিতীয় ঢেউয়ের কারণে এই মারাত্মক অবস্থার জন্য দায়ী শুধুমাত্র ধর্মীয় ও রাজনৈতিক জমায়েত।  এখন বিভিন্ন ওয়াকিবহাল মহলে প্রশ্ন উঠছে কেন  ডাঃ শাহিদ জামিলকে প্রধানমন্ত্রীর গড়ে দেওয়া INSACOG থেকে পদত্যাগ করতে হল?