শপথ গ্রহণ করেন বিজেপি-র নব নির্বাচিত এম ডি সি- রা

স্যন্দন প্রতিনিধি। আগরতলা। ২৭ এপ্রিল : গঠন মূলক আলোচনা হোক এডিসি-র কাউন্সিল ভবনে। এডিসি'র এলাকার উন্নয়ন হোক সর্বাঙ্গীণ ভাবে। এডিসিতে যারাই ক্ষমতায় থাকুন না কেন তাদের সব ধরনের সহযোগিতা করা হবে। এটাই বিজেপি-র নীতি। আলোচনার মাধ্যমে সমস্ত সমস্যার সামাধান হয়। মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে কথা হয়েছে। তিনি আসবেন বলে জানিয়েছেন। বিজেপি-র সদস্যরা গঠন ভূমিকা পালন করবে। জাতি- জনজাতিদের উন্নয়ন তরান্বিত হবে। গঠন মূলক কাজের মাধ্যমে এডিসি প্রশাসন এগিয়ে যাবে। টি টি এ এ ডি সি-র উন্নয়ন দীর্ঘ দিন যাবৎ হয়নি। এই কাজে যাতে গতি আসে তারজন্য রাজ্য সরকার সার্বিক ভাবে সহযোগিতা করবে। মঙ্গলবার এডিসি-র কাউন্সিল ভবনে শপথ গ্রহণ করেন বিজেপি-র নব নির্বাচিত এম ডি সি- রা।

এই অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে বার্তা দেন উপ মুখ্যমন্ত্রী জিষ্ণু দেববর্মণ। তিনি নির্বাচিত সকল সদস্যদের শুভেচ্ছা জানান। এদিনের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে বিজেপি-র ৯ জন সদস্যকে শপথ বাক্য পাঠ করান চেয়ারম্যান জগদীশ দেববর্মা। একই সঙ্গে শপথ নেন একমাত্র জয়ী নির্দল প্রার্থীও। পরে এডিসি ভবনে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন সকলে। শাসন ক্ষমতায় থাকা তিপ্রা মথা ও আই এন পি টি-র এম ডি সি -রাও শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে অংশ নেন। এছাড়া ছিলেন সাংসদ প্রতিমা ভৌমিক, মন্ত্রী রতন লাল নাথ, প্রনজিৎ সিংহ রায়, বিধায়ক বীরেন্দ্র কিশোর দেববর্মা, রামপদ জমাতিয়া, দিবাচন্দ্র রাঙ্খল, বিজেপি-র প্রদেশ সভাপতি ডাঃ মানিক সাহা , রাজ্য সাধারন সম্পাদিকা পাপিয়া দত্ত,  বিধায়ক বৃষকেতু দেববর্মা সহ অন্যান্যরা।

এডিসি-র মুখ্য কার্যনির্বাহী সদস্যের সঙ্গে কথা বলেন উপমুখ্যমন্ত্রী সহ অন্যান্যরা। গোটা ত্রিপুরাকে এক ত্রিপুরা শ্রেষ্ঠ ত্রিপুরা করার লক্ষ্যে পঞ্চায়েত থেকে সংসদ পর্যন্ত কাজ করছে জন প্রতিনিধিরা। বিজেপি-র থেকে এম ডি সি-রা এদিন শপথ নিয়েছেন প্রথম বারের মত। এটা ঐতিহাসিক ঘটনা। বহু মানুষ মুখে বহু কথা বলছে । কিন্তু এডিসি-র বাসিন্দাদের প্রধান চাহিদা হল রাস্তাঘাট, বিদ্যুৎ, শৌচালয় , জলের ব্যবস্থা, শিক্ষা ও স্বাস্থ্য। এগুলিতে কাজ করছে বিজেপি সরকার। তাই আজ যারা এডিসি-র ক্ষমতাসীন তাঁরা রাজ্য সরকারের সঙ্গে সহযোগিতা করে এই কাজ গুলিকে আরো তরান্বিত করার উদ্যোগ নেবেন বলে আশা ব্যক্ত করেন সাংসদ প্রতিমা ভৌমিক। বিজেপি-র প্রদেশ সভাপতি ডাঃ মানিক সাহা জানান এদিনটা একটা ঐতিহাসিক দিন। প্রথম বারের মত এডিসিতে বিজেপি-র জয়ী প্রার্থীরা এম ডি সি হিসাবে শপথ নিলেন। তাদের বলা হয়েছে এডিসিতে জাতি এবং জন জাতির যে সৌহার্দ পূর্ণ পরিবেশ রয়েছে তা যেন বজায় রাখতে তাঁরা ভূমিকা নেন। মানুষের আশা আকাঙ্খা যাতে পূর্ণ হয়। গঠন মূলক আলোচনা যাতে এডিসিতে হয়। জন স্বার্থে সরকারের সহযোগিতা নিয়ে সমস্ত কাজ যাতে হয় তাঁর আশা ব্যক্ত করেন তিনি।