যুক্তরাষ্ট্রে অবৈধভাবে আসবেন না: গুয়াতেমালায় কমলা হ্যারিস

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক, ৯ জুন : গুয়াতেমালার অভিবাসনপ্রত্যাশী নাগরিকদের অবৈধভাবে যুক্তরাষ্ট্রে না যাওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিস।বিবিসি জানায়, দায়িত্ব গ্রহণের পর প্রথম বিদেশ সফরে গুয়াতেমালায় গিয়ে কমলা সোমবার এ আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রে যাওয়ার যাত্রাপথ বিপজ্জনক। এতে কেবল মানব পাচারকারীদেরই লাভ হয়।

গুয়াতেমালার নাগরিকদের সতর্ক করে দিয়ে তিনি বলেন, অবৈধভাবে সেখানে গেলে সীমান্ত থেকে ফেরত পাঠানো হতে পারে।যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণাঞ্চলীয় সীমান্তে অভিবাসনপ্রত্যাশীদের ঢল নিয়ন্ত্রণে আনার দায়িত্ব কমলা হ্যারিসকে দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।এরপরই প্রাথমিকভাবে তথ্য সংগ্রহের জন্য কমলা এ সফরে গেছেন বলে জানিয়েছেন তার দপ্তরের এক কর্মকর্তা।কমলা বলছেন, আর্থিক সংকট, দুর্নীতিসহ সীমান্ত সংকটের মূলে যা আছে তা খুঁজে বের করে এর সমাধান করা তার দায়িত্ব।

গুয়াতেমালা সফরকালে প্রেসিডেন্টের সঙ্গে একটি যৌথ সংবাদ সম্মেলনে কমলা হ্যারিস যুক্তরাষ্ট্রে কারও অবৈধভাবে পা বাড়ানোর বিরুদ্ধে সতর্ক করে দেন।তিনি বলেন, “যুক্তরাষ্ট্রে আসবেন না, আসবেন না। আমাদের সীমান্ত সুরক্ষিত রাখার জন্য সরকার আইন প্রয়োগ করবে। আপনারা আমাদের দেশের সীমান্তে এসে গেলে ফিরিয়ে দেওয়া হবে।”দারিদ্র, দুর্নীতি এবং অর্থনৈতিক সুযোগ-সুবিধার অভাবের কারণে মধ্য আমেরিকার দেশগুলোর বহু মানুষই যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি দিতে মরিয়া।সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প আমলে এই দেশগুলো থেকে অভিবাসনপ্রত্যাশীর যে ঢল নেমেছিল, তার মধ্যে ছিল গুয়াতেমালার নাগরিকরাও।এবার গুয়াতেমালায় সফরে গিয়ে মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিস দীর্ঘদিনের এই অবৈধ অভিবাসন সমস্যা সমাধানে দেশটির সঙ্গে একযোগে কাজ করার ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্রের আগ্রহের কথাও জানিয়েছেন।