মার্শাল দ্বীপপুঞ্জে ভেসে এল কোকেইনবাহী ‘ভূতুড়ে নৌকা’

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক, ১৭ ডিসেম্বর: সৈকতে ভেসে আসা একটি পরিত্যক্ত নৌকা থেকে আনুমানিক ৮ কোটি ডলার মূল্যের ৬৪৯ কেজি কোকেইন উদ্ধার করেছে প্রশান্ত মহাসাগরীয় মার্শাল দ্বীপপুঞ্জের পুলিশ। এর আগে ওই এলাকায় আর কখনও এত বিপুল পরিমাণ মাদক পাওয়া যায়নি। ধারণা করা হচ্ছে, লাতিন আমেরিকা থেকে প্রশান্ত মহাসাগরে কয়েক মাস ভেসে থাকার পর মাদকবাহী নৌকাটি মার্শাল দ্বীপপুঞ্জে পৌঁছেছে।

ওই দ্বীপপুঞ্জের সৈকতে মাদক ভেসে আসার ঘটনা এটিই প্রথম নয়।তবে, এবারই সবচেয়ে বেশি মাদক উদ্ধারের রেকর্ড হল।পুলিশ জানিয়েছে, উদ্ধার করা মাদকের দুটি প্যাকেট ছাড়া বাদবাকি সবই পুড়িয়ে ফেলা হয়েছে। নমুনা হিসেবে রেখে দেওয়া দুই প্যাকেট কোকেইন পরীক্ষার জন্য যুক্তরাষ্ট্রের মাদক নিয়ন্ত্রক সংস্থার কাছে পাঠানো হয়েছে।বিবিসি জানায়, মার্শাল দ্বীপপুঞ্জের আইলাক এলাকার এক বাসিন্দা প্রথমে মাদকবাহী ১৮ ফুট লম্বা নৌকাটি দেখতে পায়। এরপর স্থানীয়রা নৌকাটি তীরে টেনে আনার চেষ্টা করে। কিন্তু নৌকাটি ভারী হওয়ায় তারা সে চেষ্টায় ব্যর্থ হয়।এরপর উৎসুক বাসিন্দারা নৌকার ভেতরে খোঁজাখুঁজি করে লুকিয়ে রাখা কোকেইনের প্যাকেটের হদিস পায়।মার্শাল দ্বীপপুঞ্জের অ্যাটর্নি জেনারেল রিচার্ড হিকসনের ধারণা, নৌকাটি খুব সম্ভবত মধ্য কিংবা দক্ষিণ আমেরিকা থেকে এসেছে এবং এক বছরের বেশি সময় ধরে এটি মহাসাগরে ভেসে ছিল।প্রশান্ত মহাসাগরে স্রোতের তোড়ে মার্শাল দ্বীপপুঞ্জের সৈকতে প্রায়ই মাদকসহ নানা জিনিস ভেসে আসে।