'নেতাজি জয়ন্তীকে 'পরাক্রম দিবস' ঘোষণা কেন্দ্রের

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক, ১৯জানুয়ারি: নেতাজির  জন্মদিনকে 'পরাক্রম দিবস' ঘোষণা করল ভারত সরকার। কেন্দ্রীয় সংস্কৃতি মন্ত্রকের তরফে এই মর্মে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে। সেখানেই ২৩ জানুয়ারি দিনটিকে 'পরাক্রম দিবস' হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। প্রসঙ্গত, ফরওয়ার্ড ব্লক দীর্ঘদিন ধরেই দাবি জানাচ্ছিল নেতাজির  জন্মদিনকে 'দেশপ্রেম দিবস' হিসেবে ঘোষণা করা হোক। এর পাশাপাশি, পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দাবিও তুলেছিলেন যে, নেতাজির জন্মদিনকে জাতীয় ছুটির দিন হিসেবে ঘোষণা করা হোক।

যদিও এই কোনও দাবিতেই মোদী সরকার শিলমোহর দিল না। মোদী সরকারের স্বভাবসিদ্ধ বা চেনা কর্মপদ্ধতি ধরা পড়ল এক্ষেত্রেও। নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুকে  শ্রদ্ধা জানানোর প্রশ্নেও অন্য সব পক্ষকে পিছনে ফেলে দেওয়ার চেষ্টা করল কেন্দ্র। অন্য কোন দল কী বলছে তাতে গুরুত্ব না দিয়ে বরং নিজেদের মতো করেই শ্রদ্ধা জানানোর পথ নিল কেন্দ্রের বিজেপি সরকার।নেতাজি  জয়ন্তীকে 'পরাক্রম দিবস' নাম দিয়ে আসলে ওই তারিখের গায়ে নিজেদের সিলমোহর লাগিয়ে দিল মোদী সরকার । এমনটাই মনে করছে ওয়াকিবহল মহল। আজ বিকেল ৩টেয় সাংবাদিক বৈঠক করবে কেন্দ্র। সেখানেই সরকারিভাবে নেতাজি জয়ন্তীকে দেশব্যাপী 'পরাক্রম দিবস' হিসেবে ঘোষণা করা হবে। কেন্দ্রীয় সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রী প্রহ্লাদ পাটেল সাংবাদিক বৈঠকটি করবেন।