জেল পালানো আরও ২ ফিলিস্তিনিকে ধরল ইসরায়েল

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক, ১১ সেপ্টেম্বর:  ইসরায়েলের একটি সুরক্ষিত কারাগার থেকে গত সপ্তাহে নাটকীয়ভাবে পালিয়ে যাওয়া ৬ ফিলিস্তিনির মধ্যে আরও দুইজন ধরা পড়েছে বলে জানিয়েছেন ইসরায়েল পুলিশের এক মুখপাত্র।নাজারেথ শহরের কাছে একটি আরব গ্রাম থেকে শনিবার এ দুজনকে ধরা হয়। এ পলাতকরা একটি ট্রাক পার্কিং লটে লুকিয়ে ছিলেন, বলেছেন মুখপাত্র।

এর কয়েক ঘণ্টা আগেই কারাগার থেকে পালানো আরও দুই ফিলিস্তিনি ধরা পড়েন বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।সোমবার হলিডডি সিনেমা স্টাইলে ৬ ফিলিস্তিনি তাদের কারাকক্ষের মেঝেতে করা গর্ত দিয়ে পালিয়ে যান। এ ঘটনা অনেক ফিলিস্তিনিকে উল্লসিত করলেও ইসরায়েল কর্তৃপক্ষ বেশ বিব্রত হয়।এই ৬ জনের কেউ কেউ বিভিন্ন অপরাধে দোষী সাব্যস্ত, কেউ আবার ইসরায়েলে প্রাণঘাতী হামলা চালানো বা পরিকল্পনার সন্দেহভাজন।পলাতক বাকি ২ ফিলিস্তিনিকে ধরতে অভিযান এখনও চলছে।কীভাবে তারা সুরক্ষিত কারাগার থেকে পালালো, তার বিস্তারিত তদন্ত হবে বলে জানিয়েছেন ইসরায়েলি কর্মকর্তারা।শনিবার যে দুইজন ধরা পড়েছেন, তাদের মধ্যে একজনের নাম জাকারিয়া জুবেইদি। তিনি একসময় পশ্চিম তীরের জেনিন শহরে ফাতাহ’র আল আকসা শহীদ ব্রিগেড সশস্ত্র গ্রুপের কমান্ডার ছিলেন।

ইসরায়েল কর্তৃপক্ষ একদফা তাকে ক্ষমাও করে দিয়েছিল, কিন্তু গোলাগুলির কিছু ঘটনায় সম্পৃক্ততার অভিযোগে ২০১৯ সালে ফের তাকে গ্রেপ্তার করে।জেল পালানো বাকি ৫ জন সশস্ত্র গোষ্ঠী ইসলামিক জিহাদের সদস্য।এই ৬ জনের জন্য পশ্চিম তীর ও পূর্ব জেরুজালেমে ফিলিস্তিনিদের বিক্ষোভ করতে দেখা গেছে বলে জানিয়েছে রয়টার্স।১৯৬৭ সালের যুদ্ধে ইসরায়েলের কাছে ভূখণ্ড হারানো ফিলিস্তিনিদের চোখে এরা ‘হিরো’।  ইসরায়েল বলছে, যে ফিলিস্তিনিরা ইসরায়েলবিরোধী সহিংস কর্মকাণ্ডে জড়িত তারা সন্ত্রাসী।অন্যদিকে ফিলিস্তিনের বিভিন্ন সশস্ত্র গোষ্ঠী জানিয়েছে, জেল পালানো ৬ জনকে ধরা হলে পাল্টা প্রতিক্রিয়া দেখবে ইসরায়েল।শুক্রবার ২ পলাতক ফিলিস্তিনি ধরা পড়ার পর গাজা থেকে ইসরায়েলকে লক্ষ্য করে একটি রকেটও ছোড়া হয়, যার পাল্টায় পরে ইসরায়েলও বিমান হামলা চালায়।শনিবার আরও দুইজন ধরা পড়ায় ওই অঞ্চলে আরও সংঘাত দেখা যেতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।