ছাতা হাতে প্রধানমন্ত্রী : নরেন্দ্র মোদীকে কুর্নিশ জানালেন বিজেপি নেতা-নেত্রীরা

নয়াদিল্লি, ১৯ জুলাই (হি.স.): সোমবার বাদল অধিবেশনের শুরুর দিন বৃষ্টির মধ্যে নিজের হাতে ছাতা ধরে সাংবাদিক সম্মেলন করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।যা দেখে গর্বিত বিজেপি| এদিন গোটা দেশের বিজেপি নেতা-মন্ত্রীদের একটা বড় অংশ এই ছবি নেটমাধ্যমে পোস্ট করেছেন। সকলেই গর্বের সঙ্গে যেন বলতে চেয়েছেন, ‘এমন প্রধানমন্ত্রী কোথাও গেলে পাবে নাকো তুমি...’

এদিন পার্লামেন্ট চত্বরে নিজের হাতে ছাতা ধরা প্রধানমন্ত্রীর ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করে নিজের শ্রদ্ধা জানান রাজ্যের সাংসদ প্রাক্তন মন্ত্রী দেবশ্রী চৌধুরী । সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে লেখেন, ‘দেশ স্বাধীনের পর থেকে কখনও কি এমন দৃশ্য দেখেছেন, বিশ্বের সবচেয়ে বড় গণতান্ত্রিক দেশের প্রধানমন্ত্রী স্বয়ং ছাতা ধরে আছেন! প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী শুধু নেতা নন, উনি প্রতিটি ভারতবাসীর কাছে এখন আদর্শ। নরেন্দ্র মোদীজির কর্মঠ মনোভাব, সঠিক নেতৃত্ব ভারতকে বিশ্বের দরবারে এক অন্যমাত্রায় পৌঁছে দিয়েছে।’আর এক সাংসদ সৌমিত্র খাঁ ছবি পোস্ট করে লেখেন, ‘আমরা এ রকম প্রধানমন্ত্রী পেয়ে সত্যিই খুব গর্বিত।’বিজেপি-র সর্বভারতীয় সম্পাদক বিজয় রাহাতকর কংগ্রেসের সঙ্গে তুলনা টেনে এনেছেন। টুইটারে তিনি লেখেন, ‘পণ্ডিত নেহরুর একেবারে এমন একটি ছবির অপেক্ষায় রয়েছি।’সেই ধারা বজায় রেখে বাংলার সাংসদ সৌমিত্র কংগ্রেসের অন্তর্বর্তী সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধী ও প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংহের দু’টি ছবি পোস্ট করেন। সেই ছবি দু’টিতে দেখা যাচ্ছে, সোনিয়া ও মনমোহনের দেহরক্ষীরা ছাতা ধরে রয়েছেন। তবে সেই ছবি দু’টি বৃষ্টিদিনের নয়। আর এক বিজেপি নেতা অনির্বাণ গঙ্গোপাধ্যায় শুধু সোনিয়া, মনমোহন নয়, প্রিয়ঙ্কা গান্ধী বঢ়রা, বিমান বসু, মমতা বন্দ্যোপাধ্যয়েরও এমন ছবি পোস্ট করেছেন যেখানে সংশ্লিষ্টদের মাথায় অন্য কেউ ছাতা ধরে রয়েছেন।

প্রসঙ্গত, সোমবার সংসদে শুরু হয়েছে বাদল অধিবেশন। আর বাদল অধিবেশনের প্রথম দিন ‘বাদলা আবহাওয়া’ ছিল দিল্লিতে। সংসদ ভবন চত্বরে যখন মোদীর গাড়ি এসে পৌঁছয় তখন টিপ টিপ করে বৃষ্টিও হচ্ছিল। রীতি অনুযায়ী, সংসদে অধিবেশন শুরুর প্রথম দিন লোকসভায় ঢোকার আগে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। সেই রীতি মেনেই এদিনও সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী । তার আগে গাড়ি থেকে নেমে কিছুটা পথ ছাতা মাথায় হেঁটে আসেন তিনি। সেসময় নিজের ছাতা তিনি নিজেই ধরে ছিলেন । শুধু তাই নয় এরপর সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলায় সময়ও নিজের ছাতা তিনি নিজের হাতেই ধরে ছিলেন । স্বাধীনতার পরে ভারতে কোনও প্রধানমন্ত্রীকে এইভাবে নিজের ছাতা নিজে হাতে নিতে দেখা সত্যিই বিরল।নেটমাধ্যমে এই ছবি ঘিরে নেটাগরিকদের অনেকে যেমন ‘ধন্য ধন্য’ করেছেন, তেমনই সমালোচনাও হয়েছে। কেউ কেউ মনে করিয়েছেন, মোদীর দামি পোশাকের কথা, কেউ তুলেছেন প্রধামন্ত্রীর ছবি তোলার সৌখিনতার প্রসঙ্গও। করোনা পরিস্থিতি সামলানো থেকে পেট্রোপণ্যের লাগামছাড়া দাম নিয়েও সমালোচনা করেছেন অনেকে।