করোনাভাইরাস: দাপট এখন ডেল্টা ধরনের, মৃত্যু বেড়েছে যুক্তরাষ্ট্রে

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক, ১৭ জুলাই : বিশ্বে বর্তমানে করোনাভাইরাসের ডেল্টা ধরনটি সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ছড়াচ্ছে এবং যুক্তরাষ্ট্রে বিশেষ করে যারা এখনও টিকা গ্রহণ করেনি তাদের মৃত্যুর কারণ হয়ে উঠেছে বলে জানিয়েছেন সে দেশের কর্মকর্তারা।

শুক্রবার ইউএস সেন্টারস ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশনের (সিডিসি) পরিচালক রোশেলে ওয়ালেনস্কির বরাতে রয়টার্স জানায়, যুক্তরাষ্ট্রে যেসব অংশে টিকাদানের হার কম সেখানে গত সপ্তাহে কোভিড-১৯ এ আক্রান্তের হার ৭০ শতাংশ এবং মৃত্যু ২৬ শতাংশ বেড়ে গেছে।সিডিসির তথ্য অনুযায়ী, সাত দিনের গড় দৈনিক সংক্রমণের সংখ্যা এখন ২৬ হাজারের বেশি, যা জুনের চেয়ে দ্বিগুণ। জুনে এই সংখ্যাটি ১১ হাজারে নেমেছিল।হোয়াইট হাউজের কোভিড-১৯ রেসপন্স সমন্বয়ক জেফ জিয়েন্টস জানান, আরকানসাস, ফ্লোরিডা, লুইজিয়ানা, মিজৌরি ও নেভাডায় করোনাভাইরাসে সংক্রমণ সংখ্যায় উল্লম্ফন দেখা দিয়েছে। এসব রাজ্যে টিকাদানের হার জাতীয় গড় হারের চেয়ে কম।ওয়ালেনস্কি জানান, যুক্তরাষ্ট্রে এখন যারা কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছে তাদের ৯৭ শতাংশই টিকা নেননি। “এটা এখন টিকা গ্রহণ না করাদের মহামারীতে পরিণত হয়েছে।”

তিনি জানান, সাম্প্রতিক মাসগুলোতে সংক্রমণ উল্লেখযোগ্য হারে কমে আসার পর এখন আবার যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে কাউন্টিগুলোতে কোভিড-১৯ সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ার উচ্চ ঝুঁকি দেখা দিয়েছে।হোয়াইট হাউজের কর্মকর্তা জিয়েন্টস জানান, বর্তমানে ফ্লোরিডায় প্রতি পাঁচজনে একজন সংক্রমিত হচ্ছে।যুক্তরাষ্ট্রে সংক্রমক ব্যধির শীর্ষ বিশেষজ্ঞ অ্যানথনি ফাউচি বলেন, অতি সংক্রামক ডেল্টা ধরনটি ১০০টি দেশে শনাক্ত করা হয়েছে এবং বিশ্বজুড়ে এটাই বর্তমানে করোনাভাইরাসের সবচেয়ে সক্রিয় ধরন।“আমরা কোভিড-১৯ এর একটি শক্তিশালী ধরনের মোকাবেলা করছি।”যুক্তরাষ্ট্রের যেসব বাসিন্দা এখনও টিকা নেননি তাদের দ্রুত টিকা নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন ওয়ালেনস্কি।জিয়েন্টস জানান, গত ১০ দিনে যুক্তরাষ্ট্রে প্রায় এক কোটি মানুষকে টিকা দেওয়া হয়েছে। এদের মধ্যে ওইসব রাজ্যের বাসিন্দাও রয়েছেন যেখানে টিকাদানের হার তুলনামূলক কম।তিনি আরও জানান, যুক্তরাষ্ট্রের কাছে এখনও যথেষ্ট পরিমাণ টিকার মজুদ আছে, যদি বুস্টার ডোজ দরকার হয় সেটাও মেটানো যাবে। তবে আদৌ বুস্টার ডোজ দরকার কিনা সেটা নির্ধারণে এখনও কাজ চলছে।